সপ্তম ব্যালন ডি'অর জয় ফুটবলের রাজপুত্রের

messi.

প্রত্যাশিতই ছিল। সেটা যেন শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হল। রেকর্ড সপ্তমবারের মতো ব্যালন ডি’অর জিতলেন ফুটবলের রাজপুত্র লিওনেল মেসি। 

প্যারিসে এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে মেসির হাতে ব্যালন ডি'অর তুলে দেন বার্সেলোনার প্রাক্তন সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ।

আর তাই একটু থেকে স্বপ্নপূরণ হল না রবার্ট লেভানডস্কির। দুরন্ত ছন্দে থাকলেও ব্যালন ডি'অরের লড়াইয়ে দ্বিতীয় হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল তাকে। তৃতীয় চেলসির ইতালিয়ান মিডফিল্ডার জর্জিনিও। ষষ্ঠ স্থানে রয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এবারের সেরা ফুটবলার হিসাবে স্বীকৃতি পেয়ে মেসি এখন চির প্রতিদ্বন্দ্বী পাঁচবারের বিজয়ী রোনালদোর থেকে দুই ধাপ এগিয়ে।

২০০৯, ২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৫ এবং ২০১৯ সালে ব্যালন ডি'অর জিতেছিলেন মেসি। আবার জিতলেন ২০২১ সালে।

ব্যালন ডি'অর জিতে মেসি বলেন, এখানে থাকতে পেরে দুর্দান্ত লাগছে। আমি জানি না, কতদিন এই পর্যায়ে খেলে যেতে পারব। অত্যন্ত খুশি। বার্সেলোনা এবং আর্জেন্টিনার সকল খেলোয়াড়কে ধন্যবাদ। এতদিন ধরে লড়াইয়ের পর কোপা জেতার বিষয়টা একেবারে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার অভিজ্ঞতা। 

এদিকে সেরা গোলরক্ষক তথা ইয়াসিন ট্রফি জিতে নিয়েছেন ইতালির হয়ে ইউরো জেতা জিয়ানলুইজি ডোনারুম্মা। কোপা ট্রফি খ্যাত বর্ষসেরা তরুণ ফুটবলার তথা নিজের করে নিয়েছেন বার্সার স্প্যানিশ তারকা পেদ্রি।

অন্যদিকে বার্সেলোনার অধিনায়ক আলেক্সিয়া পুটেলাসকে দেওয়া হয়েছে বর্ষসেরা নারী খেলোয়াড়ের পুরস্কার। জিতেছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও মেয়েদের লা লিগা।

আমারসংবাদ/এডি