মায়ের বিয়ে দিলেন মেয়ে, নেটপাড়ায় হৈ চৈ

biye.

মেয়েরা সাধারণত সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের বিয়ের ছবি ভিডিও ব্যাপক আগ্রহ সহকারে শেয়ার করে। কিন্তু নিজের মায়ের ছবি বা ভিডিও শেয়ার করেন এমন ঘটনা খুবই সীমিত ও বিরল।  

সম্প্রতি ৩৫ বছর বয়সী মাকে বিয়ের পিড়িতে বসিয়ে আলোড়ন তুলেছেন তারই মেয়ে মমি। 

শুধু তাই নয়, মায়ের ১৫ বছর আগের অসুখী বিবাহিত জীবনের ইতি টানার ঘটনাও অকপটে স্বীকার করেছেন মমি। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতে। 

মাকে বিয়ের পিড়িতে বসাতে পেরে নিজেও আবেগাপ্লুত ও আনন্দিত বলে জানান এই সন্তান। তবে বিয়ের পরে বাবাকে গ্রহণ করার পর খুশিতে কেঁদে দেয় মমি। পরে মা এসে তাঁকে সান্তনা দেন।

একটি অসুখী বিয়ে শেষ করার পর মায়ের দ্বিতীয় বিয়ে সম্পর্কে মমির হৃদয়বিদারক পোস্ট ভাইরাল হচ্ছে নেট দুনিয়ায়। মায়ের বিয়ে জুড়ে খুশির অন্ত ছিল না তার। 

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মায়ের বিয়ের সবকিছু তদারকি করেছে সে, প্রতিনিয়ত খুঁটিনাটির ছবি তুলে টুইটারে হালনাগাদ জানিয়ে আবেগে ভাসিয়েছে সবাইকে।

মাকে ফের বিয়ের পিঁড়িতে দেখে নিজের ভালোলাগাটাও শেয়ার করেছেন তিনি। মায়ের এই বিয়েতে মেয়ের আবেগঘন পোস্ট আলোড়ন তুলেছে ইন্টারনেট দুনিয়ায়। 

১৬ বছর পর পরিবারে বাবা হিসেবে কোনো পুরুষকে স্বাগত জানাতে পেরে খুশি মমি। নেট দুনিয়ায় টুইটের মাধ্যমে নতুন দম্পতির প্রতি শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানিয়েছেন অনেকে।

আমারসংবাদ/এডি