যত আসন তত যাত্রী নিয়ে চলছে বাস

bus

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। প্রাণঘাতী  এই ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা মেনে গণপরিবহন চলছে নতুন নিয়মে। 

আজ শনিবার (১৫ জানুয়ারি) থেকে পরিবর্তিত নিয়মে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যত সিট ততজন যাত্রী নিয়ে চলছে গণপরিবহন।

এই পরিবর্তিত নিয়মে আরও রয়েছে, তবে কোনোভাবেই বাসে দাঁড়িয়ে যাত্রী বহন করা যাবে না। লঞ্চ ও ট্রেন অর্ধেক আসন খালি রেখে চলবে। সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। বাসে স্যানিটাইজার রাখতে হবে। করোনা টিকার সনদ ছাড়া বাস চালাতে পারবেন না চালক ও শ্রমিকরা।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) রেল সচিব ড. হুমায়ুন কবির বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনে শনিবার থেকে অর্ধেক সিট খালি রেখে ট্রেন যাত্রী পরিবহন করবে।

বিআইডব্লিউটিএ সূত্র বলছে, লঞ্চে অর্ধেক আসন খালি রেখে যাতায়াত করলেও ভাড়া বাড়বে না।

ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহ বলেন, সবকিছু খোলা রেখে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চালালে গণপরিবহনে সংকট তৈরি হবে। যাত্রীরা বাস পাবে না। বিআরটিএর চেয়ারম্যান মৌখিকভাবে ‘যত সিট তত যাত্রী’ নিয়ে বাস চালানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

করোনা সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় সরকার ১১ দফা বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। গত বৃহস্পতিবার থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত দেশবাসীকে এসব বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। এসব বিধিনিষেধের মধ্যে রয়েছে উন্মুক্ত স্থানে সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও সমাবেশ বন্ধ রাখা অন্যতম। গণপরিবহনে যাত্রী পরিবহন নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেবে বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছিল।

আমারসংবাদ/এডি