Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ২৫ মে, ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

হিলি বন্দরে পচে যাচ্ছে আমদানি করা পেঁয়াজ

দিনাজপুর প্রতিনিধি 

দিনাজপুর প্রতিনিধি 

মে ১৪, ২০২২, ০২:১৪ পিএম


হিলি বন্দরে পচে যাচ্ছে আমদানি করা পেঁয়াজ

প্রচণ্ড গরম এবং বিক্রি কম হওয়ায় দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে পচতে শুরু করেছে ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ। ৫০ কেজি পচা পেঁয়াজের বস্তা বিক্রি হচ্ছে মাত্র ২০ থেকে ৩০ টাকা দরে। আবার ভালো মানেরটা বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩২ টাকা কেজি দরে। 

শনিবার (১৪ মে) সকালে হিলি বন্দরে পেঁয়াজের গুদাম ঘুরে দেখা যায়, পেঁয়াজে ভর্তি রয়েছে এসব গুদাম। প্রচণ্ড গরম আর ক্রেতা সঙ্কটের কারণে এমন হচ্ছে। নারী শ্রমিকরা পেঁয়াজ বাছাইয়ের কাজ করছেন। ভালো মানেরগুলো আলাদা করছেন, আর পচা ও অল্প খারাপগুলো মেঝেতে ঢেলে শুকানো হচ্ছে। 

বন্দর সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ এপ্রিল ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানির পারমিট শেষ হয়ে যায়। রমজানের কারণে সরকার পেঁয়াজ আমদানির পারমিট বৃদ্ধি করে দেয় ৫ মে পর্যন্ত। কিন্তু ১ মে থেকে ৫ মে পর্যন্ত ঈদের ছুটি থাকায়, পেঁয়াজ আমদানিতে ব্যর্থ হয় আমদানিকারকরা। তবে পারমিট বন্ধের কারণে প্রচুর পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে এই বন্দরে। চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি।

হিলি বন্দরের রায়হান টেডার্সের ম্যানেজার আব্দুল মান্নান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ঈদের আগে পেঁয়াজগুলো ভারত থেকে আসছে। ওই দেশ থেকে আসতে প্রায় ৭ দিন সময় লাগে, এছাড়াও গরম। এতে পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। আমরা নষ্ট ৫০ কেজি পেঁয়াজের বস্তা ২০ থেকে ৩০ টাকা করে বিক্রি করছি।’

হিলি বন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী মনোয়ার চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বেচা-বিক্রি কম, গরমে পেঁয়াজ পচে যাচ্ছে। অনেক লোকসান গুনতে হবে। ৩ টাকা থেকে ৩০ টাকা দরে পেঁয়াজের কেজি বিক্রি করছি। পচাগুলোর দাম আলাদা, আর ভালো মানেরগুলো দাম আলাদা।’

আমারসংবাদ/এআই