Amar Sangbad
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯

নীলফামারীতে মাদকের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা

নীলফামার প্রতিনিধি

নীলফামার প্রতিনিধি

জুন ২১, ২০২২, ০৫:২৮ পিএম


নীলফামারীতে মাদকের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা

নীলফামারীতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। মাদক নিয়ন্ত্রণে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার লক্ষ্যে সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে এ কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ জুন) দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের উদ্যোগে, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহযোগিতায় ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে নীলফামারী সরকারী কলেজ হলরুমে এ কর্মশালায় সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।

নীলফামারী জেলা প্রশাসক খন্দকার ইয়াসির আরেফীন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায়  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের যুগ্নসচিব মো: আলী রেজা সিদ্দিকী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-নীলফামারী জেলার পুলিশ সুপার ( সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি) মোখলেছুর রহমান বিপিএম, পিপিএম, নীলফামারী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: দিদারুল ইসলাম, রংপুর বিভাগের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো: আলী আসলাম হোসেন, নীলফামারী জেলার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মির্জা মুরাদ হাসান বেগ। 

উক্ত অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধায়নে ছিলেন-নীলফামারী জেলার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শরীফ উদ্দিন। এছাড়াও এসময় জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধে পারিবারিক শিক্ষার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন। তিনি উপস্থিত সকলকে নিজের ঘর থেকে মাদকের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু করার আহ্বান জানান। 

সভাপতির সমাপনী বক্তব্যে নীলফামারী জেলা প্রশাসক খন্দকার ইয়াসির আরেফীন পরিসংখ্যান উল্লেখ করে মাদকে সারাদেশে যে বিশাল অর্থ অপচয় হয় তা থেকে পরিত্রাণে সকল মহলের সমন্বিত উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন। 

কর্মশালায় মাদকের ভয়াবহতা রুখতে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। সে সঙ্গে জেলা ভিত্তিক সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন, জেলা ভিত্তিক কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন, উন্মুক্ত আলোচনার মাধ্যমে মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার রোধে বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়। এতে গ্রুপভিত্তিক মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে বিভিন্ন প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়। 

জেলা ও উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, রাজনীতিবিদ, শিক্ষক, সাংবাদিক, এনজিও কর্মকর্তা ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা স্থানীয় পর্যায়ে মাদক নির্মূলে বিভিন্ন সুপারিশমালা প্রস্তাব করেন।

আমারসংবাদ/এআই