Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

বাসাইলে মন্ডপে মন্ডপে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

বাসাইল প্রতিনিধি

বাসাইল প্রতিনিধি

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২, ০২:১৬ পিএম


বাসাইলে মন্ডপে মন্ডপে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

মহাষ্টমীতে দেবীর আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মাম্বলীদের শারদীয় দুর্গোৎসবের শুরু হবে আগামী ১লা অক্টোবর থেকে। চলবে ৫অক্টোবর পর্যন্ত। 

এরই মধ্যে শেষ হয়েছে প্রতিমা তৈরির কাজ। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। তুলির আঁচড়ে দেবী দুর্গাকে মূর্ত করে তোলার চেষ্টায় প্রতিমা শিল্পীরা। ঢাকের বাজনা, শঙ্খধ্বনি আর আরতিতে মুখরিত হওয়ার অপেক্ষায় বাংলার শহর গ্রামের মন্দির-মণ্ডপগুলো।

মায়ের আগমনে প্রতীক্ষার প্রহর গুনছে বাঙালি সনাতন সম্প্রদায়ের মানুষেরা। এরই ধারাবাহিকতায় জগতজননী মাকে বরণ করে নিতে টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার পূজা মন্ডপগুলোতেও চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

এবছর বাসাইল উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভায় মোট ৬২ টি পূজা মন্ডপে অনুষ্ঠিত হবে পূজা উৎসব। এর মধ্যে বাসাইল পৌরসভায় ১৫টি, সদর ইউনিয়নে ১২টি, কাউলজানি ইউনিয়নে ৫টি, কাঞ্চনপুর ইউনিয়নে ৫টি, ফুলকি ইউনিয়নে ৯টি, হাবলা ইউনিয়নে ৭টি এবং কাশিল ইউনিয়নে ৯টি পূজা মন্ডপ রয়েছে।

শান্তিপূর্ণভাবে পূজা সম্পন্ন করতে মণ্ডপগুলোতে বাসাইল উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে নানাবিধ কর্মসূচি গৃহীত হয়েছে।

এছাড়া বাসাইল থানা পুলিশের পক্ষ হতে প্রতিটি মন্ডপে মন্ডপে পর্যাপ্ত পুলিশ ও আনসার মোতায়েন করা হবে। ঝুঁকিপূর্ণ মন্ডপ গুলোতে বসানো হয়েছে সিসি ক্যামেরা।

বাসাইল উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ সুনীর রায় স্বপন বলেন, মাকে বরণ করে নিতে আমরা সকল দিক থেকেই সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহন করেছি। মায়ের আর্শীবাদে দূর হবে সকল অন্ধকার, বিশৃঙ্খলা আর ধরাধামে বইবে শান্তির সুবাতাস।

বাসাইল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, " উৎসবকে ঘিরে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশের টহলটিম  সার্বোক্ষনিক মোতায়েন থাকবে। "

এআই
 

Link copied!