বাণিজ্য মেলা বন্ধের বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত এলো

আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা বন্ধ হচ্ছে না। নতুন ঘোষণা না আসা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে মেলা চলবে। কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি এ বিষয়ে এখনো কোনো নির্দেশনা দেয়নি। কমিটি মেলা বন্ধের নির্দেশনা দিলে বন্ধ করে দেয়া হবে।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ বকসী গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চত করে বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবার স্টল সংখ্যা কমানো হয়েছে। দর্শনার্থীদের মাস্ক পরতে হবে এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। মেলা বন্ধ হবে কি না সে বিষয়ে সরকার ঘোষিত প্রজ্ঞাপনে কিছু বলা হয়নি। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসলে তখন মেলা বন্ধ হবে। তবে এখন স্বাস্থ্যবিধি মেনে মেলা চলবে।

আব্দুল লতিফ বকসী বলেন, দর্শনার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে কি না তা তদারকি করার জন্য মেলা প্রাঙ্গণে আমাদের মনিটরিং টিম আছে। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর কর্মকর্তাদের অফিস আদেশের মাধ্যমে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তদারকির জন্য। 

মেলার পরিচালক ইপিবির সচিব মো. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে যে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে, সে অনুযায়ী মেলাতেও নতুন নতুন পদক্ষেপ নেয়া হবে। প্রাথমিকভাবে আজ থেকে আমরা মাস্ক ছাড়া কাউকে ঢুকতে দেব না। ভেতরেও মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে বিশেষ নজর রাখবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

উল্লেখ্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা বিধিনিষেধগুলো বৃহস্পতিবার থেকে কার্যকর হচ্ছে। সেখানে রেস্তোরাঁয় বসে খাওয়ার ক্ষেত্রে কোভিড টিকা সনদ থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। টিকা সনদ ছাড়া ১২ বছরের বেশি বয়সী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। বাস, ট্রেনের মত লঞ্চেও ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করতে বলা হয়েছে। সব ধরনের বাহনের চালক ও সহকারীদেরও টিকা সনদ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আমারসংবাদ/এআই