ববিতে ছাত্রী মারধরের ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ১

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নারী শিক্ষার্থীকে লাঞ্ছনা ও মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত জাহিদ হোসেন জয় নামে স্থানীয় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) রাত ১০টায় মাদারীপুর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে জাহিদ হোসেন জয়, মাকুন মোল্লা ও চরকাউয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য সাইদুল আলম লিটনের নাম উল্লেখ ও আরও ২-৩ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে ভুক্তভোগী ছাত্রীর স্বামী সোহাগ হাসান বাদী হয়ে মামলা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. খোরশেদ আলম বলেন, গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্নিকটে ন্যক্কারজনক ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রধান অভিযুক্ত গ্রেপ্তার হয়েছে এটা স্বস্তিদায়ক খবর। ঘটনার যথাযথ তদন্তের মাধ্যমে দ্রুত আইনি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে বলে আশা রাখি। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে সে ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সব মহলের দায়িত্বশীল আচরণ প্রত্যাশা করছি।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় স্বামীকে নিয়ে বেড়াতে গেলে ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ছাত্রী ও তার স্বামীকে আটকে রেখে চরকাউয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার সাইদুল আলম লিটনসহ কয়েকজন মিলে তাদের মারধর করে। এর প্রতিবাদে ববির শিক্ষার্থীরা শেখ রাসেল পাঠাগার, লিটন মেম্বার ও জয়ের বাড়িতে ভাঙচুর করে। সেখান থেকে ফিরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বরিশাল কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। তবে প্রশাসনের আশ্বাসে তারা অবরোধ তুলে নেয়।

আমারসংবাদ/এমএস