শোক ও শ্রদ্ধায় ডাক্তার মিলন দিবস পালিত

যথাযোগ্য মর্যাদায় ৯০-এর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলনের ৩১তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গণে ডা. মিলনের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-এম খোকন সিকদার

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত হলো ডাক্তার মিলন দিবস। স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী গণঅভ্যুত্থানে নিহত চিকিৎসক নেতা ডাক্তার মিলনের ৩১তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। 

শ্রদ্ধা জাননো শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গণতন্ত্রকে পুরোপুরি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে আরো সময় প্রয়োজন। ১৯৯০ সালের এই দিনে স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী গণঅভ্যুত্থানে চিকিৎসক নেতা ডাক্তার শামসুল আলম খান মিলন টিএসসির সামনে গুলিতে নিহত হন। 

এ ঘটনার পর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন নতুন গতি পায় এবং মপল সপ্তাহের মাথায় এরশাদের পতন ঘটে। মিলন দিবস উপলক্ষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে ডাক্তার মিলনের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। 

এসময় দেশে গণতন্ত্রের বিকাশ নিয়ে কথা বলেন আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতারা। পরে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন-বিএমএ আয়োজিত স্মরণসভায় বক্তারা বলেন, ডাক্তার মিলনের আত্মত্যাগ সামরিক শাসন থেকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামকে বেগবান করেছিল।