Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

জামায়াতের ভোট দিয়েই ‘মাতব্বরি’ করে বিএনপি: আব্দুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক

আগস্ট ২৯, ২০২২, ০৫:২৮ পিএম


জামায়াতের ভোট দিয়েই ‘মাতব্বরি’ করে বিএনপি: আব্দুর রহমান

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতের বর্তমান অবস্থা বড় উইকেটের পতন। এই পতনের মধ্যে দিয়ে বিএনপির ভোটের বাক্সে আকাল পড়বে। কারণ জামায়াতের ভোট দিয়েই বিএনপি মাতব্বরি-সরদারি করে। সেই সরদারির জায়গায় প্রচণ্ড রকমে ঘারতি সৃষ্টি হবে। 
আজ সোমবার (২৯ আগস্ট) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহম্মদ মহসীন হল ছাত্রলীগ কতৃক আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

হাজী মুহম্মদ মহসীন হল ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিদুল হক এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেনের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস , সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।

বিএনপি-জামায়াতের বর্তমান অবস্থান রাজনৈতিক কৌশল উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, রাতে গাভী বাছুরকে দুধ দিবে। কিন্তু দিনের বেলায় একে অন্যের সাথে দেখা করবে না। এমন রাজনৈতিক কৌশল নিয়ে তারা (বিএনপি-জামায়াত) এগুতে পারে। তবে বাস্তবতা হচ্ছে- বাস্তবে সম্পার্ক খারাপ হলে বিএনপির ভোটের বাক্সে আকাল পড়বে। শূন্য থেকে আরও শূন্য হবে। সে ব্যাপারে কোনো সন্দহ নেই।

স্বাধীনতা বিরোধী চক্রদের ক্ষমা নেই জানিয়ে আব্দুর রহমান বলেন, আপনারা (ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা) মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের সন্তান। ওই স্বাধীনতা বিরোধী চক্র ও বঙ্গবন্ধুর খুনী জিয়াউর রহমানের ক্ষমা কিন্তু আমাদের কাছে নেই। ওই খুনীদের বিচারের কাঠগড়ায় দাড় করাতে আপনাদের শপথ নিতে হবে।
এর আগে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যুব মহিলা লীগের আয়োজনে শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান। সেখানে তিনি বলেন, বিএনপি রাজনীতি করে জ্বালাও-পোড়াওয়ের। তাদের এই নোংরা বোঝা জামায়াত কাঁধে নিতে চায় না বলেই তারা জোট ছাড়ছে।

পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, একটি জাতিকে নিশ্চিহ্ন করে দিতে মহান নেতা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করা হয়। সেখানেও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের হাত ছিলো।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন ১৪ দলের মুখপাত্র ও সমন্বয়ক আমির হোসেন আমু। অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, মেহের আফরোজ চুমকি, অপু উকিলসহ যুব মহিলা লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ইএফ

Link copied!