সেই প্রতারকের সঙ্গে জ্যাকুলিন

ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) কার্যালয়ে গত অক্টোবরে  ডাক পড়েছিল বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের। একটি প্রতারণা মামলার সঙ্গে যোগ থাকার সূত্রে তাকে প্রায় সাত ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। 

এরপর বিষয়টি নিয়ে তেমন মাতামাতি হয়নি। কিন্তু এবার বিপাকেই পড়লেন জ্যাকুলিন। কারণ, যে প্রতারণা মামলার তদন্ত চালাচ্ছিল ইডি, সম্প্রতি মামলার আসামির সঙ্গেই অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ ছবি ফাঁস হয়েছে— যা ইতোমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। ওই প্রতারকের নাম সুকেশ চন্দ্রশেখর। তিনি ভারতের বেশ আলোচিত প্রতারক। তার বিরুদ্ধে ২০০ কোটি রুপি মানি লন্ডারিংয়ের মামলা রয়েছে। 

ইডির ধারণা, সুকেশের সঙ্গে জ্যাকুলিনের যোগাযোগ রয়েছে। সে সূত্রেই অভিনেত্রীকে ডাকা হয়েছিল। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে আরও জানা গেছে, চলতি বছরের জুন-জুলাইয়ের দিকে ছবিটি তোলা হয়েছে। সে সময় অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছিলেন সুকেশ চন্দ্রশেখর। তার সঙ্গে চেন্নাইয়ে অন্তত ৪ বার দেখা করেছিলেন জ্যাকুলিন। ইডির দাবি, জ্যাকুলিনের জন্য এই প্রতারক প্রাইভেট জেটের ব্যবস্থাও করেছিলেন। 

এদিকে ইডি’র জেরার পর বিষয়টি নিয়ে জ্যাকুলিনের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেন, ‘জ্যাকুলিনকে সাক্ষী হিসেবে ডেকেছিল ইডি। তিনি জবানবন্দি দিয়েছেন। এছাড়া ভবিষ্যতে তদন্তের স্বার্থে তিনি যে কোনো সহযোগিতা করবেন।’ 

উল্লেখ্য, জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ ২০০৯ সালে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন ‘আলাদিন’ সিনেমার মাধ্যমে। তবে তিনি জনপ্রিয়তা পান ২০১১ সালের ‘মার্ডার ২’ সিনেমায় অভিনয় করে। শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভূত এই তারকা প্রথম জীবনে সাংবাদিকতা করতেন। এরপর মডেলিং দিয়ে পা রাখেন বিনোদন জগতে। পরবর্তীতে তাকে দেখা গেছে ‘হাউজফুল ২’, ‘রেস ২’, ‘কিক’, ‘রয়’, ‘ঢিশুম’ ও ‘জুড়ুয়া ২’ সিনেমায়।