Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

সরকারি খরচে ৮০০ জন হজে যেতে ব্যায় হবে ৪০ কোটি টাকা!

নিজস্ব প্রতিবেদক

মে ১৭, ২০২২, ০৮:০৯ পিএম


সরকারি খরচে  ৮০০ জন হজে যেতে  ব্যায় হবে ৪০ কোটি টাকা!

করোনার কারণে দুই বছর বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশ থেকে এবার ৫৭ হাজার মুসলিম ধর্মপ্রাণ মানুষ হজে যেতে পারবেন৷ কিন্তু খরচ বেড়ে যাওয়ায় অনেকেই সংকটে পড়েছেন৷ এর মধ্যেই ধর্ম মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা সরকারি খরচে তিনজন করে হজে পাঠানোর আবদার করেছেন৷ কমপক্ষে ৮০০ জন সরকারি খরচে এবার হজে যেতে পারছেন৷ এদের মধ্যে প্রশাসনিক কর্মকর্তা, ডাক্তার, নার্স ছাড়াও বিভিন্ন পেশার লোকজন থাকবেন৷ এজন্য সরকারের মোট খরচ পড়বে অন্তত ৪০ কোটি টাকা৷ ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলেছেন সংসদীয় কমিটির বিষয়টি এখানো চূড়ান্ত  হয়নি৷ তারা ১০ জনের প্রত্যেককে ‘দুস্থ কোটায়' তিন জন করে পাঠাতে চান৷ বাকি যারা সরকারি খরচে যাবেন তারা নানা সেবামূলক কাজে যাচ্ছেন৷ 

এবার সরকারি খরচে কমপক্ষে ৮০০ জন হজে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. রহুল আমিন মাদানি৷ তিনি বলেন, ‘‘তার মধ্যে আমাদের কমিটির আমরা ১০ জন সদস্য তিনজন জন করে মোট ৩০ জনকে পাঠানোর জন্য বলেছি৷ এলাকার লোকজন যেতে চায়, তাই আমরা এই সুবিধা চেয়েছি৷ কিন্তু সেটা হবে কি না জানি না৷'' তিনি বলেন, ‘‘ওই ৮০০ জনের মধ্যে প্রশাসনিক কর্মকর্তা, ডাক্তার, নার্স ছাড়াও বিভিন্ন খাতের লোকজন রয়েছেন৷ গরিব লোকদেরও কোটা আছে৷'' 

সংসদীয় কমিটির পছন্দের ৩০ জনকে পাঠালে সরকারের খরচ হবে কমপক্ষে দেড় কোটি টাকা৷ ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘‘হজ ব্যবস্থাপনার জন্য সরকারি কর্মকর্তা, চিকিৎসক, নার্স, সহায়তাকারী পাঠাতে হয়৷ এবারও পাঠানো হবে৷ এর বাইরে দুস্থদের কোটা আছে৷ দুস্থ কোটায় সংসদীয় কমিটির ১০ জনের প্রত্যেকে তিনজন করে পাঠাতে চান৷ আমি প্রথমে না বলেছি৷ তবে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি৷ দেখি কী করা যায়৷'' 

গরিবদের হজ করা ফরজ কী না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘না এটা এমন ব্যক্তিদের জন্য যারা অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা, দেশের জন্য অনেক করেছেন কিন্তু হজে যাওয়ার ইচ্ছে পূরণ হয়নি অর্থ না থাকার কারণে৷''

ইএফ