নদী সাঁতরে ভারত থেকে বাংলাদেশে এসে ভিক্ষাবৃত্তি!

অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করায় সিলেটে সীতারাম (৫০) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সীতারাম অনুপ্রবেশের বিষয়ে পুলিশকে জানিয়েছেন, বাংলাদেশে আসার পেছনে তার মহৎ বা অসৎ কোনো উদ্দেশ্য নেই। শুধুমাত্র দুই মুঠো ভাতের জন্যই নদীর ওপার থেকে সাঁতরে এপারে এসেছেন। 

ভারতের এই নাগরিকের পুরো নাম শ্রী সীতারাম লাল চন্দ। তিনি ভারতের ছত্রিশগড়ের বিলাসপুর জেলার মরোয়ারী থানাধীন মাটিয়াঢাল এলাকার শ্রী শ্যামলাল চন্দ্র দাসের ছেলে।

সিলেট নগরীর রেলস্টেশন সংলগ্ন ভার্থখলা এলাকায় বাংলা ও হিন্দি ভাষায় কথা বলে ভিক্ষা করার সময় স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। 

সীতারামের কাছে কোনো পাসপোর্ট কিংবা কোনো ধরনের বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি। গ্রেফতারের পর দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ একটি মামলা করে। এএসআই আমিনুর রহমান মামলা দায়েরের পর তাকে শনিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠান। 

এ বিষয়ে দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি কামরুল হাসান তালুকদার বলেন, সীতারাম বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর ৫৩ দিন ভারতের অভ্যন্তরেই ভিক্ষা করেন। এরপর জাফলং সীমান্ত দিয়ে নদী সাঁতরে অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। সিলেটে আসার পর রেলওয়ে স্টেশনসহ বিভিন্ন স্থানে ভিক্ষাবৃত্তিতে নেমে পড়েন।

আমারসংবাদ/জেআই