Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯

আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে ধরা, মেয়েকে পুলিশে দিলেন বাবা

আ ন ম রুহুল আমিন চিশ্তী, ক্ষেতলাল (জয়পুরহাট)

ডিসেম্বর ৪, ২০২১, ০৩:৪৫ পিএম


আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে ধরা, মেয়েকে পুলিশে দিলেন বাবা

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার মামুদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ তাউসারা বেলতা বানদিঘী গ্রামের সুলতান শাহ্'র বিদেশ ফেরত মেয়ে মৌসুমি সুলতানা (২৪) কে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে নিজ মেয়েকে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দিয়েছেন।

গেলো শুক্রবার রাত ১১টায় উপজেলার তাউসারা বেলতা বানদিঘী গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। 

ওই মেয়ের বাবা ও থানার অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, মৌসুমি সুলতানা দীর্ঘদিন যাবত মালয়েশিয়া প্রবাসী ছিলেন। সে গত নভেম্বর মাসে দেশে ফিরে। বাড়ীতে আসার পর থেকে বিদেশী স্টাইলে বেপরোয়া চলাফেরা ও অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়ে। 

ওই মেয়ে এলাকার বিভিন্ন বয়সী ছেলেদের সাথে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত হয় এবং একসময় মাদকের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। পরিবারের লোকজন তাকে বারবার নিষেধ করলে তার সহযোগীদের নিয়ে মা এবং বাবাকে মারধর করে। এমন ঘটনায় অতিষ্ঠ হয়ে তার বাবা থানায় অভিযোগ করে। 

এ ঘটনায় ক্ষেতলাল থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) শাহ আলম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে শুক্রবার রাত ১১টায় অভিযান চালিয়ে তার নিজ শয়ন কক্ষ থেকে একটি পালসার (১৫০ সিসি) মোটরসাইকেল সহ আপত্তিকর অবস্থায় উপজেলার বারোইল নয়াপাড়া গ্রামের মেহের আলী মন্ডলের ছেলে তোরাব উদ্দিন মন্ডল (৩৫) ও মৌসুমী সুলতানাকে আটক করে পুলিশ।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মৌসুমি সুলতানা বলেন, বিদেশ থেকে দেশে ফেরার পর তোরাব উদ্দিন মন্ডল'কে গোপনে বিয়ে করি। আমার বাবার সঙ্গে ঝগড়া হওয়ার কারণে তিনি থানায় মিথ্যে অভিযোগ করে।

ক্ষেতলাল থানার ওসি (তদন্ত) শাহ আলম বলেন, মেয়ের বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তার নিজ বাড়ি থেকে তাদের দু'জনকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে এবং বিয়ের বৈধ প্রমাণ না থাকায় তাদের পেনাল কোর্টে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আমারসংবাদ/এআই