চরনদ্বীপ ইউপিতে পুনরায় নৌকার মাঝি হলেন শামশুল আলম

নানা জল্পনা-কল্পনাকে ভেদ করে পুনঃরায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন চরনদ্বীপ ইউনিয়নের ব্যাপক আলোচিত বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ শামশুল আলম। 

আগামী ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতার জন্য নৌকা প্রতীকে দল থেকে মনোনয়ন পান তিনি।

জানা যায়, চরনদ্বীপ  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে অনেকের নাম কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের কাছে পাঠানো হয়। এরমধ্যে তাদের কাজ, যোগ্যতা, সততা ও নিষ্ঠা দেখে আওয়ামীলীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মোঃ শামশুল আলমকে আবারও নৌকার মাঝি হিসাবে মনোনীত করেন।

আওয়ামী লীগের দলীয় বৈঠক শেষে রবিবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে মোঃ শামশুল আলমকে নৌকার চূড়ান্ত প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন ঘোষণা করা হয়। বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ শামশুল আলমের নাম প্রকাশের পর দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও এলাকার জনসাধারণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে অভিনন্দন দেন।

এ ব্যাপারে চরনদ্বীপ ইউনিয়ন  আওয়ামী লীগের সভাপতি জি,এম বাবর চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শামশুল আলমকে প্রার্থী ঘোষণা করায় আমরা সবাই উজ্জিবিত। সকল ভেদাভেদ ভুলে দলের জন্য নিবেদিত শামশুল আলমকে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী করে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে সম্মানিত করবো, ইনশাল্লাহ। 

এদিকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোঃ শামশুল আলম জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আমার প্রানপ্রিয় অভিভাবক চট্টগ্রাম দক্ষিনজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ এমপি,র প্রতি কৃজ্ঞতা জানাচ্ছি। আশা করছি, আমার কর্মগুণে দলমত নির্বিশেষে ভোদাভেদ ভুলে সবাই আমাকে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করে বাকী উন্নয়ন কাজকে বেগবান করতে সহযোগিতা করবেন।

তিনি আরও বলেন,জনগণ ভালোবেসে আমাকে ভোট দিয়ে এর আগেও চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন। এবারও উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে  জয়যুক্ত করবেন আপামর জনসাধারণ।

আমারসংবাদ/কেএস