হেলিকপ্টারে করে হাতিয়া দেখতে আসবে মানুষ: প্রতিমন্ত্রী মাহবুব

নোয়াখালী বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলাবাসীর উন্নয়নকল্পে ও হাতিয়াকে পূর্ণাঙ্গ পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে নিরলস কাজ করছে সরকার। এই দ্বীপকে একসময় পর্যটকরা হেলিকপ্টারে করে দেখতে আসবে বলে মন্তব্য করেছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এম মাহবুব আলী।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার তমরুদ্দি এলাকা পরিদর্শন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

এম মাহবুব বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দ্বীপবাসীর উন্নয়ন তাই বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা সেই স্বপ্ন পূরণে নিরলশ কাজ করে যাচ্ছেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই দ্বীপকে পর্যটন উপযোগী করার জন্য অনেকগুলো উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এবং ইতোমধ্যে অনেকগুলো প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এই সুন্দর দ্বীপ দেখতে পর্যটকরা হেলিকপ্টারে করে আসবে। এতে করে হাতিয়ার জীবনমানের পরিবর্তন হবে। এই দ্বীপের চেহারা পাল্টে যাবে।

এ সময় নোয়াখালী-৬ (দ্বীপ উপজেলা হাতিয়া) আসনের সংসদ সদস্য আয়েশা ফেরদৌস বলেন, নিঝুম দ্বীপকে পর্যটনমুখী করার জন্য ভালো ভালো রিসোর্ট নির্মাণ করা জরুরি। আমরা চাই দেশি পর্যটকের পাশাপাশি বিদেশি পর্যটক আসুক এই দ্বীপে। সরকারের সহযোগিতা পেলে এই দ্বীপকে আরোও বেশি আধুনিক করা যাবে।

এসময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোজাম্মেল হোসেন, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী (অতিরিক্ত সচিব) জাবেদ আহমেদ নোয়াখালী-৬ (দ্বীপ উপজেলা হাতিয়া) আসনের সংসদ সদস্য আয়েশা ফেরদৌস, হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম হোসেন, হাতিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মাহবুব মুর্শেদ লিটন, হাতিয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ কেফায়েত উল‍্যাহ সহ আরো অনেকে।

আমারসংবাদ/কেএস