Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

কাতার বিশ্বকাপ

৬০ কোটিতে ম্যাচ কেনার বিতর্কে কাতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

নভেম্বর ১৯, ২০২২, ০৭:৩০ পিএম


৬০ কোটিতে ম্যাচ কেনার বিতর্কে কাতার

পর্দা উঠছে ফিফা বিশ্বকাপ-২০২২। ২২তম আসরে রোববার (২০ নভেম্বর) রাত ১০টায় ইকুয়েডরের উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামবে স্বাগতিক কাতার। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এ পর্যন্ত উদ্বোধনীম্যাচে স্বাগতিক কোনো দেশ হারেনি। তেল বাণিজ্যের কৃপায় বিপুল ঐশর্যের অধিকারী দেশটি। তবে এবারের বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হিসেবে খেলতে নামার আগেই ৭.৪ মিলিয়ন আমেরিকান ডলার ঘুষ দিয়ে ম্যাচ কেনার বিতর্কে জড়িয়েছে তারা।

বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় ৬০ কোটিও বেশি। এই পরিমাণ টাকা দিয়ে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচটি কিনে নিতে মরিয়া কাতার সরকার। লক্ষ্য যে করেই হোক বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হিসেবে খেলার মাঠে একটি দাগ রেখে যাওয়া। প্রতিপক্ষ দল দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ইকুয়েডর। অভিযোগ সেই দেশের কাছে গোপনে ৭.৪ মিলিয়ন আমেরিকান ডলার পাঠিয়েছে কাতার।

ম্যাচ কেনার অভিযোগ তুলেছেন মধ্যপ্রাচ্যের ব্রিটিশ গবেষণা কেন্দ্রের আঞ্চলিক প্রধান আমজাদ তাহা। তার বিস্ফোরক দাবি, ইকুয়েডর ম্যাচ ছেড়ে দেবে কাতারকে। উদ্বোধনী ম্যাচে জয়ের জন্য ইকুয়েডরের আটজন ফুটবলারকে ৭.৪ মিলিয়ন ডলার ঘুষ দিয়েছে কাতার।

দ্বিতীয়ার্ধে করা গোলে ইকুয়েডরকে হারাবে কাতার। বিশ্বকাপ যুদ্ধের প্রথম ম্যাচেই জয় চায় কাতার। আয়োজক দেশ হিসেবে এটা জরুরি বলে মনে করছে কাতার। বিতর্ক আরও বেড়েছে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে নিজের দেশের হয়ে গ্যালারিতে থাকছেন না ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট।

তিনি কেন আসছেন না এই প্রশ্নের পরই ইকুয়েডরকে বিপুল অর্থ দিয়ে ম্যাচ কেনার বিতর্কে জড়ায় কাতার।ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট গুইল্লারমো লাসো বলেছেন, আমি কাতারের আমিরকে ধন্যবাদ জানাই আমন্ত্রণ করার জন্য। জাতীয় নিরাপত্তার খাতিরে আমি বিশ্বকাপ উদ্বোধনী ম্যাচে থাকতে পারব না। তবে ভাইস প্রেসিডেন্ট থাকবেন।

টিএইচ
 

Link copied!