Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

‘বিউটি সার্কাস’ এখন দর্শকের সম্পত্তি

বিনোদন প্রতিবেদক

বিনোদন প্রতিবেদক

সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২২, ০১:৩২ এএম


‘বিউটি সার্কাস’ এখন দর্শকের সম্পত্তি

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান কলকাতায় নিজের ব্যস্ততার মধ্য থেকে প্রায় তিন দিনের ছুটি নিয়ে গত বুধবার ঢাকায় এসেছিলেন। তার একমাত্র কারণ ছিল তারই অভিনীত ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমার প্রচারে অংশগ্রহণ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে এই সিনেমার প্রচারে অংশগ্রহণ করেন তিনি।

জয়া আহসান জানান, আজ সারাদিন সিনেমা হলে হলে গিয়ে তিনি দর্শকের সঙ্গে বসে সিনেমাটি উপভোগ করবেন। বলা যায় বেশ কিছুদিন বিরতির পর ঢাকার সিনেমা হলে জয়া আহসান তার নিজের অভিনীত সিনেমা হলে দর্শকের সঙ্গে বসে উপভোগ করবেন। বিষয়টি নিয়ে জয়া আহসান নিজেও বেশ উচ্ছ্বসিত।

মাহমুদ দিদার পরিচালিত সরকারি অনুদানের সিনেমা ‘বিউটি সার্কাস’ প্রসঙ্গে জয়া আহসান বলেন, ‘পৈতৃক সূত্র ধরেই সার্কাসকে ধরে রাখার আন্তরিক প্রয়াস থাকে বিউটির। আবার সমাজের কিছু মানুষ আছে তা ধ্বংস করার পাঁয়তারা চালায়। তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী হয়ে ওঠে বিউটি। সার্কাসে টিকে থাকার লড়াইয়ে বিউটি বদ্ধপরিকর থাকে। কারণ এটি তার পারিবারিক ঐতিহ্য। আবার বিউটি নিজেই দলের প্রধান এবং অন্যতম শিল্পী। সব মিলিয়ে তাকে ঘিরেই গল্প।

এই সিনেমাতে অভিনয়ের জন্য আমাকে যারা সার্কাস করে থাকেন, তাদের সঙ্গে সময় কাটাতে হয়েছে। খুব কাছে থেকে তাদের জীবনকে দেখতে হয়েছে আমাকে। সার্কাসের মানুষদের কাছে থেকে দেখা এবং বিউটি সার্কাসে অভিনয় করা আমার অভিনয় জীবনের জন্য এক অন্যতম জার্নি।

এই সিনেমায় প্রয়াত মোহসীন স্যারসহ গাজী রাকায়েত ভাই, ফেরদৌসসহ আরও অনেকেই অভিনয় করেছেন। সবার আন্তরিক অংশগ্রহণে বিউটি সার্কাস একটি অসাধারণ সিনেমায় পরিণত হয়েছে।

আবার আমি যেহেতু পশু-পাখি প্রেমিক, সে হিসেবে এই সিনেমায় পশু-পাখি ব্যবহারের ক্ষেত্রে যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছে। আমি নিজেই সে বিষয়ে বিশেষভাবে সজাগ থেকেছি। দীর্ঘদিন ধরে এই সিনেমার শুটিং হয়েছে। এতদিন এই সিনেমা আমাদের ছিল, আর এখন বিউটি সার্কাস দর্শকের সম্পত্তি।

তাই দর্শককে বলব, আপনারা হলে গিয়ে সিনেমাটি উপভোগ করুন। বিশেষ করে বলতে চাই, সবাই বাচ্চাদের সঙ্গে নিয়ে যাবেন, বাচ্চারা সিনেমাটি দেখে মজা পাবে।’

জয়া আহসান জানান, আজই তিনি কলকাতায় চলে যাবেন। সেখানে কিছু কমার্শিয়াল কাজ নিয়ে তার প্রচণ্ড ব্যস্ততা রয়েছে। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত বরেণ্য অভিনেত্রী জয়া আহসান, এখন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী। দুই দেশেই তিনি সিনেমার কাজ নিয়েই ব্যস্ত থাকেন। তাই দুই বাংলাতেই তাকে সময় কাটাতে হয়। ঢাকায় এলে কাজের বাইরে মা বোনের সঙ্গেই তাকে সময় কাটাতে হয়।

Link copied!