ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের স্ত্রী পুরুষ নাকি নারী!

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁর স্ত্রী ফার্স্ট লেডি ব্রিজিত মাখোঁর লিঙ্গপরিচয় নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই বলছেন, ব্রিজিত আসলে রূপান্তরকামী নারী। পুরুষ হিসেবে জন্ম নিয়েছিলেন ব্রিজিত।

তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছে ফরাসি সরকার। বলা হয়েছে, ফার্স্ট লেডি ব্রিজিতের বিরুদ্ধে এমন ষড়যন্ত্রের জন্য আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম বিবিসি আজ বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত সেপ্টেম্বরে প্রথম উগ্র ডানপন্থীদের একটি ওয়েবসাইটে ব্রিজিতের লিঙ্গপরিচয় নিয়ে বিভ্রান্তিকর ও ষড়যন্ত্রমূলক একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

পরে তা দ্রুত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব আকারে ছড়িয়ে পড়ে। গুজব রটে, ব্রিজিত আসলে রূপান্তরকামী নারী। পুরুষ হিসেবে জন্ম নিয়েছিলেন। জন্মের সময় তাঁর নাম ছিল জেন-মিশেল ত্রোগনেউক্স।