এলপিজি সিলিন্ডারের দাম আরও কমলো

ফাইল ছবি

তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলপিজি) ও পরিবহনের জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত এলপিজির (অটোগ্যাস) দাম আরও কমেছে। 

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম আরও কমায় দেশেও আবার দাম কমানো হয়েছে। ৩ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টা থেকে এই দাম কার্যকর হবে।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) সোমবার অনলাইনে বিইআরসি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নতুন এই দাম ঘোষণা করা হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে কমিশন চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল, সচিব আবু সায়িদ, সদস্য মকবুল ই ইলাহিসহ অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জানুয়ারি মাসে প্রতিকেজি এলপিজির সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য হবে ৯৮ টাকা ১৭ পয়সা, যা ডিসেম্বরে ১০২ টাকা ৩২ পয়সা ছিল। এই হিসাবে প্রতি কেজিতে এলপিজির দাম কমছে ৪ টাকা ১৫ পয়সা বা ৪ শতাংশ।

সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ১২ কেজির এলপিজি সিলিন্ডারের দাম নতুন হারে দাঁড়াচ্ছে ১১৭৮ টাকা, যা ডিসেম্বরে ১২২৮ টাকা ছিল। অর্থাৎ, ১২ কেজির সিলিন্ডারে একজন ভোক্তার সাশ্রয় হবে ৫০ টাকা।

নতুন মাসে এলপিজির মূল উপাদন প্রোপেন প্রতি টন ৭৪০ ডলার, বিউটেন প্রতি টন ২১০ ডলার এবং এই দুইয়ের মিশ্রনের দাম প্রতি টন ৭২০ দশমিক ৫০ হিসাব করা হয়েছে। গত মাসের মতই ডলারের বিনিময় মূল্য ধরা হয়েছে ৮৫ টাকা ৮৫ পয়সা।

প্রতি কেজি এলপিজির খুচরা মূল্য ৯৮ টাকা ১৭ পয়সা ধরে জানুয়ারিতে সাড়ে ৫ কেজির সিলিন্ডারের দাম ৫৪০ টাকা, সাড়ে ১২ কেজির দাম ১২২৭ টাকা, ১৫ কেজির দাম ১৪৭৩ টাকা, ১৬ কেজির দাম ১৫৭১ টাকা, ১৮ কেজির দাম ১৭৬৭ টাকা, ২০ কেজির দাম ১৯৬৩ টাকা, ২২ কেজির দাম ২১৬০ টাকা, ২৫ কেজির দাম ২৪৫৪ টাকা, ৩০ কেজির দাম ২৯৪৫ টাকা, ৩৩ কেজির দাম ৩২৪০ টাকা, ৩৫ কেজির দাম ৩৪৩৬ টাকা এবং ৪৫ কেজির দাম ৪৪১৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, টানা পাঁচ মাস মূল্যবৃদ্ধির পর গত ডিসেম্বরে এলপিজির দাম কমা শুরু করে। জানুয়ারিতে দ্বিতীয় মাসের মত দাম কমল, যার মূল কারণ সৌদি সিপি অনুযায়ী প্রোপেন ও বিউটেনের মূল্য কমে আসা।

আমারসংবাদ/এআই