Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

ইভ্যালির নামে রেজিস্ট্রেশন করা গাড়ি ফেরত দিতে আল্টিমেটাম

নিজস্ব প্রতিবেদক

জানুয়ারি ১৩, ২০২২, ০৩:২০ পিএম


ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির নামে রেজিস্ট্রেশন করা গাড়ি আগামী সাত দিনের মধ্যে ফেরত চেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনার জন্য গঠিত পরিচালনা বোর্ড। আগামী ২০ জানুয়ারির মধ্যে পরিচালনা বোর্ডের কাছে এগুলো জমা না দিলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইভ্যালির পরিচালনা বোর্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মাহবুব কবীর মিলন।

মাহবুব কবির মিলন বলেন, ইভ্যালির নামে রেজিস্ট্রেশন করা যে গাড়িগুলো তাদের কর্মকর্তাদের নামে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল সেগুলো আগামী ২০ জানুয়ারির মধ্যে পরিচালনা বোর্ডের কাছে হস্তান্তর করতে হবে। যদি কেউ ফেরত না দেয়, সেক্ষেত্রে তাদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি আত্মসাতের মামলাসহ অন্যান্য আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যে বিআরটিএ থেকে ইভ্যালির গাড়ির বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। ইভ্যালির সমস্যা ও অগ্রগতি সম্পর্কে কিছু তথ্য আগামী সপ্তাহে দেওয়া যাবে। আমরা শেষ পর্যন্ত চেষ্টা না করে সবাইকে পথে বসানোর মতো কাজ করব না।

গত বছরের ২৬ অক্টোবর ফেসবুক স্ট্যাটাসে নতুন বোর্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবীর মিলন ইভ্যালির বিষয়ে আতঙ্কিত বা হতাশ না হওয়ার পরামর্শ দি‌য়ে‌ছিলেন।

গত ১৮ অক্টোবর ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি পরিচালনার জন্য আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে প্রধান করে বোর্ড গঠন করে হাইকোর্ট।

বোর্ডে আরও আছেন স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন বিভাগের সাবেক সচিব মোহাম্মদ রেজাউল আহসান, আলোচিত অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবীর মিলন, চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট ফখরুদ্দিন আহম্মেদ, কোম্পানি আইন বিশেষজ্ঞ আইনজীবী ব্যারিস্টার খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ।

এর আগে ১৩ অক্টোবর ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি পরিচালনার জন্য হাইকোর্ট যে কমিটি গঠনের কথা বলেছেন তার জন্য তিন জন সাবেক সচিবের নাম পাঠায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

প্রতারণার অভিযোগে করা মামলায় ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ রাসেল এবং তার স্ত্রী ও প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে ১৬ সেপ্টেম্বর গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। গত ২২ সেপ্টেম্বর ইভ্যালির স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বিক্রি ও হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট। ইভ্যালির সব নথি হাইকোর্টে জমা দেওয়া হয়েছে। গত ১১ অক্টোবর বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চে এসব নথি দাখিল করেন জয়েন্ট স্টক কোম্পানির রেজিস্ট্রার।

আমারসংবাদ/জেআই