Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯

মেডিকেলে ভর্তি হয়েও অন্ধকার দেখছেন মেহেদি হাসান

রুবেল হোসাইন, মিঠাপুকুর

নভেম্বর ২, ২০২১, ০৮:২৫ এএম


মেডিকেলে ভর্তি হয়েও অন্ধকার দেখছেন মেহেদি হাসান

মিঠাপুকুর উপজেলার ০২ নং রানীপুকুর ইউনিয়নের তাজনগর পশ্চিম পাড়ার অজো পাড়া গায়ের দারিদ্র পরিবারের সন্তান মেহেদি হাসান। তার বাবার নাম আলমগীর হোসেন,মাতার নাম মাজেদা বেগম, চার ভাইবোনের মধ্যে মেহেদি তৃতীয় সন্তান।

মেহেদির বাবা আলমগীর পেশায় একজন ছোটখাটো কাঠ ব্যবসায়ী। তিনি যা আয় করেন তা দিয়ে ছোট মেয়ের লেখাপড়া সহ পরিবারের খরচ চালাতে হিমশিম খেতে হয়। তার কোনো জায়গা জমি নেই, মাত্র ৪ শতাংশ জমির উপর বসতবাড়ি। 

এই পরিবারের অদম্য মেধাবী ছাত্র মেহেদি হাসান পরিবার এবং বিভিন্ন শিক্ষানুরাগীদের সহযোগিতায় ২০২০-২০২১ মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ৭২ শতাংশ মার্ক নিয়ে শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সুযোগ লাভ করেন। কিন্তু বর্তমানে তার বাবার পক্ষে আর তার পড়াশোনার খরচ চালা সম্ভব হচ্ছে না। এখন পর্যন্ত মেহেদি তার পড়ার জন্য সবকটি বই কিনতে পারেননি বলে জানান।

বই সহ কিছু মেডিকেল ইকুপমেন্ট কিনতে মেহেদি হাসান মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতেমাতুজ জোহরার কাছে সাহায্যের আবেদন করলে তিনি এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলাম (রাঙ্গা) কে তার পড়াশোনা খরচ বহন করতে সহযোগিতা করতে বলেছেন বলে জানা যায়।

মেহেদি হাসান আমার সংবাদকে জানান, আমি চিকিৎসক হয়ে মানুষের সেবা করতে চাই। আপনারা আমাকে সহযোগিতা করুন। আমি চিকিৎসক হয়ে মানবিক ডাক্তার হতে চাই। আমি গরীব পরিবারের সন্তান। আপনারাই পারেন আমার স্বপ্ন পূরণ করতে?

মেহেদি হাসানের বাবা তার ছেলের স্বপ্ন পূরণে দেশবাসীসহ সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন। 

মেহেদি হাসানকে কেউ সহযোগিতা করতে চাইলে তার বাবার মুঠোফোনে 0 1723-594224 যোগাযোগ করতে পারেন।

আমারসংবাদ/এআই