ঢাবির ডিন নির্বাচন: নীল দলের একচেটিয়া বিজয়

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮টি অনুষদের ডিন নির্বাচনে সবকটি পদে জিতেছে আওয়ামী পন্থী নীল দলের প্রার্থীরা। তার আগে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন সাদা দলের কোনো প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ২টি পদে নীল দলের প্রার্থী বিজয়ী হয়েছিল।

নীল দল থেকে বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন:
১. কলা অনুষদে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক আবদুল বাছির পেয়েছেন ১৫৪ ভোট, ২. সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে  অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জিয়া রহমান ১৬১ ভোট , ৩. ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে  অর্গানাইজেশন স্ট্র্যাটেজি অ্যান্ড লিডারশিপ বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মাদ আবদুল মঈন ১২১ ভোট, ৪. বিজ্ঞান অনুষদে ফলিত গণিত বিভাগের অধ্যাপক আবদুস সামাদ ১০৭ ভোট, ৫. জীববিজ্ঞান অনুষদে প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এ কে এম মাহবুব হাসান ৮৭ ভোট, ৬. ফার্মেসি অনুষদে ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক সীতেশ চন্দ্র বাছার ৩২ ভোট, ৭. ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক হাফিজ মো. হাসান বাবু ৫২ ভোট এবং ৮. চারুকলা অনুষদে অঙ্কন ও চিত্রায়ণ বিভাগের অধ্যাপক নিসার হোসেন ৪৩ ভোট। এদিকে সাদা দলের সব প্রার্থী এই নির্বাচনে হেরেছেন।

সাদা দল থেকে পরাজিত প্রার্থীরা হলেন:
কলা অনুষদে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান পেয়েছেন ৮০ ভোট, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এ এস এম আমানউল্লাহ পেয়েছেন ২৪ ভোট, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ফিন্যান্স বিভাগের অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী পেয়েছেন ৬১ ভোট, বিজ্ঞান অনুষদের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ইমরান কাইয়ুম পেয়েছেন ৩৪ ভোট, জীববিজ্ঞান অনুষদের মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক আখতার হোসেন খান পেয়েছেন ৬৯ ভোট, ফার্মেসি অনুষদের ফার্মাসিউটিক্যাল কেমিস্ট্রি বিভাগের অধ্যাপক মো. শাহ এমরান ২১ ভোট, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. হায়দার আলী ২৫ এবং চারুকলা অনুষদের গ্রাফিক ডিজাইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. ইসরাফিল রতন পেয়েছেন ৮ ভোট।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা ভোট প্রয়োগ করেন। বিকেলে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

ফলাফল ঘোষণা শেষে নির্বাচন পরিচালক বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক মো. মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমরা চেষ্টা করেছি করোনার এই পরিস্থিতিতে যতটুকু সম্ভব নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা। এ কারণে এই প্রথমবার আমরা তিন জায়গায় ভোট কেন্দ্র করেছি। যারা অসুস্থ তারা যাতে কেন্দ্রে না আসেন এজন্য তাদের গাড়ি থেকে আমরা ভোট সংগ্রহ করেছি।

আমারসংবাদ/কেএস