Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ২৫ মে, ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

শাবিপ্রবির সাবেক ২ শিক্ষার্থীকে আটকের অভিযোগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

জানুয়ারি ২৫, ২০২২, ০৮:১৫ এএম


শাবিপ্রবির সাবেক ২ শিক্ষার্থীকে আটকের অভিযোগ

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান আন্দোলনের মধ্যেই রাজধানীর উত্তরা থেকে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) আটক করেছে বলে জানা গেছে।

তারা হলেন-শাবিপ্রবির আর্কিটেকচার বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী রেজা নূর মুঈন দীপ ও সিএসই বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমান স্বপন।

চলমান উপাচার্যবিরোধী আন্দোলনের আন্দোলনকারীদের ‘টাকা পাঠানোয়’ রেজা নূর মুঈনকে আটক করা হয়েছে বলে মনে করেছেন তার স্ত্রী ও একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী জাকোয়ান সালওয়া তাকরিম।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে তিনি অভিযোগ করে বলেন, রেজা সন্ধ্যায় উত্তরা অ্যাগোরার কাছে মুদি কেনাকাটার জন্য গিয়েছিলেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তাকে সিআইডির সাইবার ক্রাইম ইউনিট তুলে নেয়।

পরে তারা রেজার গাড়ি ফেরত দিতে বাসায় আসে এবং জানায় যে রেজাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিআইডি সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। যারা বাসায় এসেছিল তাদের গাড়িতে সিআইডির স্টিকার লাগানো ছিল বলে জানান রেজার স্ত্রী। তার ধারণা, শাবিপ্রবিতে চলমান উপাচার্যবিরোধী আন্দোলনের আন্দোলনকারীদের ‘টাকা পাঠানোয়’ রেজাকে আটক করা হয়েছে।

এদিকে উত্তরার যে বাসায় ওই দুইজন থাকতেন, ওই ভবনেই থাকেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের ২০০৮-০৯ ব্যাচের সাবেক শিক্ষার্থী এবং একটি আইটি ফার্মের এমডি শাহ রাজী সিদ্দিকী।

নিজেকের স্বপনের ‘লোকাল গার্ডিয়ান’ হিসেবে পরিচয় দিয়ে সোমবার রাতে তিনি এক ফেইসবুক পোস্টে দুজনকে ‘তুলে নিয়ে যাওয়ার’ খবর দেন।

[embed]<iframe src="https://www.facebook.com/plugins/post.php?href=https%3A%2F%2Fwww.facebook.com%2Fshahrazi%2Fposts%2F5122643777766208&show_text=true&width=500" width="500" height="246" style="border:none;overflow:hidden" scrolling="no" frameborder="0" allowfullscreen="true" allow="autoplay; clipboard-write; encrypted-media; picture-in-picture; web-share"></iframe>[/embed]

গণমাধ্যমকে শাহ রাজী সিদ্দিকী বলেন, গতকাল সন্ধ্যার পর ওদের উত্তরার বাসা থেকে ধরে নিয়ে যায় সিআইডির কর্মকর্তা পরিচয় দেওয়া ব্যক্তিরা। ঘণ্টাখানেক তাদের মাইক্রোবাসে রেখে দেওয়া হয়, তখন আমরা কথা বলেছি তাদের সঙ্গে। সিআইডির কর্মকর্তারা আমাদের বলেছেন, শাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের টাকা দিয়ে সহযোগিতা করার জন্য তাদের ধরা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালেও সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা হয়েছে জানিয়ে শাহ রাজ সিদ্দিকী বলেন, সিআাইডির এক কর্মকর্তা আমাকে বলেছেন, যাদের নেওয়া হয়েছে, তাদের বিষয়ে বেলা ১২টায় আপডেট জানান হবে।

তবে সিআইডির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। সিআইডির মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজাদ রহমান বলেন, বিষয়টি জেনে পরে আমরা বিস্তারিত জানাব।

সাইবার ক্রাইম ইউনিটের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, যথাযথ প্রক্রিয়ায় গণমাধ্যমকে এ বিষয়ে জানানো হবে।

আমারসংবাদ/জেআই