থানচিতে পাহাড়ের গভীর খাদে পড়ে নিহত ৩

বান্দরবানে থানচিতে নির্মানাধীন লিকক্রি-থানচি সড়কে চাঁন্দের গাড়ির পাহাড়ে গভীর খাদে পড়ে গাড়ি চালকসহ ৩ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ৫ জন গুরুত্বরভাবে আহত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) সকাল অনুমানিক সাড়ে ১০টা সময় থানচি-লিকক্রি সড়কে ওয়াক-চাক্কু ম্রো পাড়া নামক স্থানের একটি চান্দের গাড়ি (বি-৭০) লট নং ১৪৪ নিয়ন্ত্রণ হাড়িয়ে পাহাড়ে গভীর খাদে পড়ে দুর্ঘটনা কবলিত হয়। 

স্থানীয়দের সহযোগীতায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে থানচি সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করানো হয়। 

নিহতরা হলেন-সাতকানিয়া চট্টগ্রাম বাসিন্দা আশু (৫০), রুমা বাকলাই পাড়া বাসিন্দা লালসিম এল বম (২৫), চকরিয়া বাসিন্দা মোঃ হোসেন (৫৫)।

আহতরা হলেন-রুমা বাকলাই পাড়া বাসিন্দা সুমতন বম (৫০), কুচপাড়ী চকরিয়া বাসন্দিা মোঃ নাছির (২৮), নরসিংহপুর ফকিরহাট বাসিন্দা মোঃ মাইউদ্দিন (৩৫), টুঙ্গিপাড়া গোপালগজ্ঞ বাসিন্দা মোঃ সাইফুল ইসলাম (৩৫), মোঃ সাদ্দাম হোসেন (৪০)।
  
পুলিশ সূত্রে জানান যায়, থানচি-লিকক্রি সড়কে ১৭ কিলোমিটার হতে থানচি সদর উদ্দেশ্যে সড়ক উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারের নিয়োগকৃত ৫ জন শ্রমিক, মা ও শিশুসহ ৩ জন স্থানীয় বাকলাই পাড়া বাসিন্দাকে নিয়ে থানচি সদরে রওনা হয় গাড়িটি। 

পথেমধ্যে এই মা ও শিশুটি নেমে পড়ে। পরে ড্রাইভারসহ অপর ৮জন দুর্ঘটনা কবলিত হয়েছে বলে সূত্রে জানা যায়।
 
স্থানীয়রা মনে করেন, বেপরোওয়া গাড়ি চালানো এবং ড্রাইভারদের অসচেতনতার কারণে প্রতিনিয়ত বান্দরবানের থানচিতে জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতে দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে অনেককে অকালে প্রাণ দিতে হয়েছে।
 
থানচি থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ সাইফুদ্দিন আনোয়ার ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতদের উদ্ধার করে তাদের স্ব-স্ব ঠিকানায় লাশ পৌঁছানো ব্যবস্থাসহ আহতদের চিকিৎসা ব্যবস্থা গ্রহণসহ উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদসহ মেডিকেল অফিসারের পরামর্শে সু-ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আব্দুল্লাহ আল নোমান সাংবাদিকদের জানান, থানচি সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থা অনুয়ায়ী আমরা প্রাথমিক সেবা দিয়েছি। আহতরা সবাই গুরুত্বর হওয়াই অত্র উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসা করার সম্ভব হয়নি। তাই তাদের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আমারসংবাদ/এআই