Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

ঘোড়ায় চড়ে শ্বশুরবাড়ি, কনে আনলেন পালকিতে

শরিফ রুবেল

নভেম্বর ১৮, ২০২১, ০৩:০৫ পিএম


ঘোড়ায় চড়ে শ্বশুরবাড়ি, কনে আনলেন পালকিতে

ভোলা শহরের যুবক আনোয়ারুল আজিজ। শহরের গাজীপুর রোডের বাসিন্দা মো. আনোয়ারুল আজিজ বরযাত্রী নিয়ে ঘোড়ার পিঠে চড়ে নববধূকে আনতে যান। কনের বাড়িতে বিয়ের ভোজ শেষে নববধূ সুমাইয়া আক্তার ইরাকে পালকি চড়িয়ে টগবগিয়ে ঘোড়া করে ফিরেছেন নিজের ঘরে। বুধবার (১৭ নভেম্বর) বিকেলে ব্যতিক্রমী এ আয়োজনটি হয়েছে।

বর মো. আনোয়ারুল আজিজ রাজধানীতে পাসপোর্ট অফিসে কম্পিউটার অপারেটর পদে চাকরি করেন। কনে সুমাইয়া আক্তার ভোলা সরকারি শেখ ফজিলাতুন্নেছা মহিলা কলেজে স্নাতক শ্রেণির শিক্ষার্থী।

এ বিষয়ে আনোয়ারুল আজিজ গণমাধ্যমকে বলেন, “আগে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য ছিল পালকিতে নববধূ শ্বশুরবাড়িতে আসবে। বর ঘোড়ার পিঠে করে বিয়ে করতে শ্বশুরবাড়ি যেত। কিন্তু কালের পরিবর্তনে তা বিলীন হয়ে গেছে প্রায় ৩০-৪০ বছর আগে। তবে আমি আমার বিয়েকে স্মরণীয় করে রাখতে নিজে ঘোড়ার পিঠে চড়ে বরযাত্রী নিয়ে কনের বাড়ি যাই। স্ত্রীকে পালকি চড়িয়ে, নিজে ঘোড়ার পিঠে চড়ে বাড়িতে ফিরি।”
 
উল্লেখ্য, এক সময় ঘোড়ায় করে সম্ভ্রান্ত পরিবারের পুরুষরা যেতেন বিয়ে করতে। নববধূকে পালকিতে তুলে টগবগিয়ে ফিরতেন নিজের ঘরে।
দক্ষিণাঞ্চলে সেদিন এখন অতীত। ঘোড়াও নেই আর চার, ছয় কিংবা আট বেহাড়ার পালকি দেখতে তো যেতে হয় জাদুঘরে। হারানো সেই ঐতিহ্যের দেখা মিলেছে ভোলার একটি বিয়েতে।

আমারসংবাদ/এআই