৩ মাসের মধ্যে পুনঃনিবন্ধন না করলে সিম বন্ধ

   ‘আগামী তিন মাসের মধ্যে সব মোবাইল গ্রাহকের সিমকার্ড নতুন করে নিবন্ধন করতে হবে।’‘মঙ্গলবার সকালে নিয়ন্ত্রণ সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) এ বিষয়ে উদ্যোগ নিতে চিঠিও দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন এ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। এতে তিন মাসের মধ্যে সকল গ্রাহকের সঙ্গে ডিলার এবং সিমকার্ড বিক্রেতার নিবন্ধন করতে বলা হয়েছে।’‘দেশে হয়রানি, চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কার্যকলাপ এবং জঙ্গিবাদ এড়াতেই এ উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

বিটিআরসিকে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, সিম পুনঃনিবন্ধনের বিষয়টি ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে গ্রাহককে জানাতে হবে। ১০ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে তা নিবন্ধন করতে হবে। নতুবা তা বন্ধ করে দেয়া হবে। পত্রিকাতেও এ ধরনের বিজ্ঞাপন ছাপাতে বলা হয়েছে। ডিস্ট্রিবিউটর ও রিটেলারদের প্রকৃত সংখ্যা ও বৈধ কাগজপত্র সনাক্ত করে নিশ্চিত করতে হবে। তা সংরক্ষণ করতে হবে।

এছাড়া তামাকজাত পণ্যের সংবিধিবন্ধ সতর্কীকরণের মতো মোবাইল ফোন অপারেটরদের নির্ধারিত বিজ্ঞাপন ও বিলবোর্ডের নিচে সর্তকীকরণ বার্তা প্রচার করতে হবে। বার্তায় উল্লেখ করতে হবে, ‘অবৈধ ও অনিবন্ধিত সিম ব্যবহার দেশের ও আপনার জন্য বিপদজনক, এখনই সিম বৈধভাবে নিবন্ধন করুন।’ ৭ দিনের মধ্যে এ নির্দেশ কার্যকর করতে হবে। গ্রাহককে বিনামূল্যে কোনো সিম দেয়া যাবে না বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। এদিকে গতবছরই মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো অনিবন্ধিত সব সিম বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

এর আগে রোববার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রীর এক বৈঠকে সিম নিবন্ধনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সব সিমকার্ড নতুন করে নিবন্ধনের বিষয়ে তারানা হালিম বলেন, ‘অনেক গ্রাহক আগে নিবন্ধন করেছেন। কিন্তু বাস্তবতা হলো সেসব নিবন্ধনের তথ্য যাচাই করা হয়নি। তাই সবাইকে নতুন করে নিবন্ধন করতে হবে।’ প্রতিমন্ত্রী জানান, সব সিমকার্ড নতুন করে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য বিটিআরসিকে আগামী সাত দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।