সিম পুনঃনিবন্ধন শুরু রোববার থেকে

       আগামী রোববার থেকে সিম পুনঃনিবন্ধন শুরু হচ্ছে। একই সঙ্গে যাদের সিম সঠিকভাব নিবন্ধিত রয়েছে তাদের তথ্যাদি যাচাই করতে হবে। আগামী ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে। এর মধ্যে সিম নিবন্ধন ও যাচাই না করলে সিম বন্ধ করে দেয়া হবে।

বুধবার সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানিয়েছেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘যারা ইতোমধ্যে সঠিকভাবে সিম নিবন্ধন করছেন, তাদের নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই। তাদেরকে শুধু নিবন্ধন যাচাই করে নিতে হবে। তবে যাচাইয়ে যাদের নিবন্ধন সঠিকভাবে হয়নি বলে দেখা যাবে, তাদের সিম পুনঃনিবন্ধন করাতে হবে।’

তারানা হালিম বলেন, ‘গ্রাহকরা কীভাবে সিম যাচাই বা পুনঃনিবন্ধন করবেন, সেই প্রক্রিয়া আগামী রোববারের মধ্যে জানিয়ে দেয়া হবে।’

২০১২ সালের ১১ অক্টোবর থেকে মোবাইল ফোন অপারেটররা ‘প্রি-একটিভ’ সিম (আগে থেকেই চালু) বিক্রি করতে পারবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন। কেউ নিবন্ধনহীন সিম ব্যবহার করলে প্রতিটি সিমের জন্য অপারেটরকে ৫০ ডলার করে জরিমানা করারও সিদ্ধান্ত হয়েছিল। তবে তিন বছরেও তা কার্যকর হয়নি।

বেশিরভাগ অপারেটর সিম নিবন্ধন প্রক্রিয়া সঠিকভাবে সম্পন্ন করছে না এবং অনেকক্ষেত্রে অনিবন্ধিত সিম বিক্রির দায় অপারেটরা খুচরো বিক্রেতাদের উপর চাপিয়ে দেয় বলেও অভিযোগ রয়েছে। বিটিআরসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশের ছয়টি মোবাইল ফোন অপারেটরের মোট গ্রাহক সংখ্যা ছিল ১২ কোটি ৮৭ লাখ।