Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ১৮ মে, ২০২২, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

এলার্জি থেকে মুক্তি পেতে যা করবেন

আমার সংবাদ ডেস্ক

অক্টোবর ২৬, ২০২১, ১২:০৫ পিএম


এলার্জি এমন এক সমস্যা যা হয়তো আপনার জীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলছে। এজন্য আপনাকে কত কিছুইনা করতে হচ্ছে তবুও মুক্তি পাচ্ছেন না। কোনো একটি খাবার গ্রহণের আগে ভাবতে হচ্ছে এটি খাওয়া উচিত কি না। অনেক সময় সুস্বাদু ও পুষ্টিকর খাবার সামনে পেয়েও পাতে তুলে নিতে পারছেন না। জিহ্বায় জল এলেও মুখে উঠছে না। তাই অনেক খাবারই খাদ্য তালিকা থেকে বাদ পড়ে যাচ্ছে। শরীরে ঠিকমতো পুষ্টির যোগান হচ্ছে না। শরীরও প্রয়োজনীয় ভিটামিন পাচ্ছে না।   

এলার্জির এই চিন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলুন। তাহলে জেনে নিন, কীভাবে এলার্জিকে তাড়াবেন। বেশ সহজ একটি কাজ। আর তা-ও বিনা পয়সায়। এজন্য আপনাকে মাত্র কদিন একটু নিয়ম মেনে চলতে হবে। প্রথমেই এক কেজি পরিমাণ নিম পাতা ভালো করে রোদে শুকিয়ে নিন। এই শুকনো পাতা পাটায় পিষে গুড়ো করুন। এরপর  তা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন একটি কৌটায় পুরে রাখুন। এবার বাজার থেকে ইসবগুলের ভুষি নিয়ে নিন। নিম পাতার গুড়ো থেকে প্রতি এক চা চামচের তিন ভাগের এক ভাগ ও এক চা চামচ ইসবগুলের ভুষি এক গ্লাস পানিতে ত্রিশ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। আধাঘণ্টা পর একটা চামচ দিয়ে ভালো করে নাড়ুন। 

 এভাবে প্রতিদিন সকালে খালি পেটে,  দুপুরেরে ভরা পেটে ও রাতে শোয়ার আগে ২১ দিন একটানা খেয়ে দেখুন। হয়তো এক মাসের মধ্যে এর কার্যকারিতা উপলব্ধি করতে পারবেন। আপনার এলার্জি আর থাকবে না। এবার নিজের পছন্দ মতো খাবার খেতে শুরু করুন। গরুর মাংস, হাঁসের ডিম, কচুশাক, পুঁইশাক, বেগুন ইত্যাদি যা আপনি এতদিন খেতে ভয় পেতেন। আশা করি এখন আর কোনো সমস্যা হবে না। 

তবে এক গবেষণায় উঠে এসেছে পুরুষদের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত নিমপাতা খাওয়া শুক্রাণুর জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। অন্যদিকে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদেরও প্রচুর পরিমাণে নিমপাতা না খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকেরা। কারণ তাতে মহিলাদের ভ্রুণ নষ্ট হওয়ার আশংকা থাকে। এ কারণে একনাগাড়ে অনেকদিন নিম পাতা খাওয়া উচিত নয়। সূত্র : ইন্টারনেট   

লেখক : মুহাম্মদ মিজানুর রহমান   
প্রাবন্ধিক ও গবেষক  

 

আমারসংবাদ/ইএফ