Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪,

শিক্ষা কর্মকর্তার দুর্নীতির বিরুদ্ধে অধিদপ্তরে শিক্ষিকার অভিযোগ

গাজীপুর মহানগর প্রতিনিধি

গাজীপুর মহানগর প্রতিনিধি

নভেম্বর ২, ২০২২, ০৬:৩১ পিএম


শিক্ষা কর্মকর্তার দুর্নীতির বিরুদ্ধে অধিদপ্তরে শিক্ষিকার অভিযোগ

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে ফের অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। সম্প্রতি শিক্ষকদের অনলাইনে বদলির সফটওয়্যার চালু করেছে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা অধিদপ্তর।

অপরাধ অর্থ-বাণিজ্য ও অনিয়ম দুর্নীতি প্রতিরোধ করার জন্য সরকার এই উদ্যোগ নিয়েছে। তবে সচ্ছ সফটওয়্যার ব্যবহারে অস্বচ্ছতার অভিযোগ উঠেছে খোদ শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। তিনি নূর মোহাম্মদ (বাবুল)।

এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন সহকারী শিক্ষক খালেদা খানম। তিনি উপজেলার ভিটিপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভিটিপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। গত (১৮ সেপ্টেম্বর) একই উপজেলার মারতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শূন্য পদের বিপরীতে অনলাইনে বদলির জন্য আবেদন করেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গেছে, অনলাইনে বদলির আবেদন করার পর যথারীতি শ্রীপুর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদ আবেদন প্রক্রিয়া না করে তিনি বাতিল করে দেয়।

লিখিত অভিযোগ দাখিল করে সু-বিচার দাবি এবং অনলাইন আবেদনটি পুনরায় সচ্ছল রাখার আহ্বান জানান খালেদা খানম।

নতুন নিয়মানুযায়ী, বদলিপ্রত্যাশী শিক্ষক প্রথমে অনলাইনে বদলির আবেদন করবেন। আবেদনটি প্রাথমিকভাবে অনলাইনেই যাচাই করে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের শিক্ষক পাঠাবেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে। উপজেলা কর্মকর্তা অনলাইনেই যাচাই করে পাঠাবেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার (ডিপিইও) কাছে। ডিপিইও সেটি মঞ্জুর বা নামঞ্জুরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিয়ে পাঠিয়ে দেবেন আবার উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে।

ডিপিইওর সিদ্ধান্তের আলোকে উপজেলা কর্মকর্তা বদলির বিষয়ে প্রয়োজনীয় আদেশ জারি করবেন। এরপর সংশ্লিষ্ট শিক্ষক তার আবেদনের বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনলাইনেই জেনে যাবেন।
এ ব্যাপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াত বলেন, শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ তদন্ত করা হবে। অপরাধ প্রমাণিত হলে, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কেএস 

Link copied!