Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪,

সাতক্ষীরায় জামায়াতের মিছিল, গ্রেপ্তার ১৭

কাজী নাসীর উদ্দীন, সাতক্ষীরা

কাজী নাসীর উদ্দীন, সাতক্ষীরা

ডিসেম্বর ২৪, ২০২২, ০৬:৪৩ পিএম


সাতক্ষীরায় জামায়াতের মিছিল, গ্রেপ্তার ১৭

গণতন্ত্র পূণঃপ্রতিষ্ঠা, অন্তবর্তীকালিন তত্বাবধায়ক সরকার গঠন, আমীরে জামায়াত ডাঃ শরিফুল ইসলাসহ গ্রেপ্তারকৃত সকল রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের মুক্তি, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দামের ঊর্ধ্বগতি রোধ, সরকারের সীমাহীন দুর্ণীতির প্রতিরোধ ও কেন্দ্র ঘোষিত ১০ দফা দাবি বাস্তবায়নের লক্ষে সাতক্ষীরা জেলা জামায়াতের গণমিছিল পন্ড করে দিয়েছে পুলিশ। এ সময় ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা ছাত্র শিবিরের সেক্রেটারী ও উপজেলার পশ্চিম নারায়ণপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে হাবিবুর রহমান (২১), একই উপজেলার ভাড়াসিমলা গ্রামের আজগার আলী গাজীর ছেলে সাগর হোসেন (২৫), একই গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে ছাত্রশিবির কর্মী আবু মুছা (২২), সাতক্ষীরা সদরের ঘোনা গ্রামের মোকছেদ আলী গাজীর ছেলে স্থানীয় ওয়ার্ড জামায়াতের রুকন মশিয়ার রহমান (৬০), একই গ্রামের সৈয়দ আলী গাজীর ছেলে জামায়াত কর্মী মোঃ ফজলুর রহমান (৬২), সাতক্ষীরা শহরের মুন্সিপাড়ার সামছুল আলমের ছেলে জামায়াত কর্মী শফিকুল আলম (৫৫), সদর উপজেলার খলিলনগর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে ছাত্রশিবির কর্মী সাঈদ হোসেন (১৯), একই উপজেলার কাথন্ডা গ্রামের জিল্লুর রহমানের ছেলে ছাত্রশিবির কর্মী আল আমিন হোাসইন (২৩), একই গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে ছাত্রশিবির কর্মী বায়েজিদ হোসেন (২২), একই গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে ছাত্র শিবির কর্মী মোস্তাকিম বিল্লাহ (১৭), আব্দুল মজিদের ছেলে ছাত্রশিবির কর্মী সোলাইমান হোসেন (২৩), ইমাম আলীর ছেলে জামাযাত সমর্থক মফিজুল ইসলাম (৩৫), একই উপজেলার মৃগিডাঙা গ্রামের মান্নান গাজীর ছেলে ছাত্রশিবির কর্মী রাশেদ হোসেন (১৯), শ্যামনগর উপজেলার আটুলিয়া গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে ছাত্র শিবির কর্মী জাহিদ হাসান (২২), দেবহাটা উপজেলার উত্তর কুলিয়া গ্রামের বেলায়েত আলী গাজীর ছেলে ছাত্রশিবিরের সাইফুল ইসলাম (২২) ও একই উপজেলার ঘোনাপাড়া গ্রামের গোলাম রহমানের ছেলে জামায়াত কর্মী আব্দুল হামিদ সরদার (৫৮)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে হঠাৎ শহরের ইটাগাছা হাটের মোড় থেকে একটি মিছিল বের হয়ে তুফান মোড়ের দিকে এবং মিছিলের অপর একটি অংশ সদর উপজেলার পরিষদের সামনে থেকে শুরু করে জামায়াত অফিসের দিকে যাওয়ার সময় বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশের বাধার মুখে তা পন্ড হয়ে যায়। এসময় নাশকতা সৃষ্টির পরিকল্পনা ও সরকার বিরোধী ষড়যন্ত্রের অভিযোগে ১৭ জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী ও সমর্থককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে পাঁচটি ককটেল। গ্রেপ্তারের সময় জামায়াতের নেতা কর্মীরা সরকার ও সরকার বিরোধী স্লোগান দেয়।

এদিকে সাতক্ষীরা জেলা জামায়াতের একটি সূত্র জানান, ১০ দফা দাফিতে সাতক্ষীরায় বিক্ষোভ মিছিল সফল হয়েছে। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে শহরের ইটাগাছা হাটের মোড় থেকে মিছিলটি বের হয়। পরে মিছিলটি তিন খন্ড তিন দিকে চলে যায়। মিছিলের একটি অংশ ইটাগাছা হাটের মোড় থেকে তুফান মোড়ের দিকে অগ্রসর হয়। মিছিলের অপর অংশ ইটাগাছা ওয়াপদার মোড়ের দিকে অগ্রসহ হয়ে বিক্ষোভ করে।

মিছিলের অপর একটি অংশ সুলতানপুর বড় বাজার হয়ে মুন্সিপাড়ার দিক বিক্ষোভ করে। মুন্সিপাড়াগামী মিছিলটি উপজেলার সামনে পৌঁছালে পুলিশের বাধার মুখে পড়ে। এসময় সেখানেই সমাবেশ করে বিক্ষোভকারীরা।

সূত্রটি আরও জানায়, মিছিল শেষ করে ফেরার পথে কদমতলা মোড় এলাকা থেকে ৬ জন, মুন্সিপাড়া থেকে ৩ জন ও ভিষা অফিস মোড় এলাকা থেকে ২ জনসহ শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে আরো ৬জনকে আটক করা হয়।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জিহাদ মোঃ ফখরুল আলম খাঁন বলেন, জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা শনিবার সকালে নাশকতা সৃষ্টির চেষ্টা করলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১৬ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে। তার কাছ থেকে পাঁচটা ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপপরিদর্শক দোলায়ার হোসেন বাদি হয়ে সরকার উচ্ছেদের ষড়যন্ত্রে ককটেল ফাটিয়ে নাশকতা সৃষ্টির পরিকল্পনার অভিযোগে ১৯৭৮ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫(৩), ২৫(ডি) তৎসহ বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের ৪ ও ৬ ধারায় শনিবার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তারকৃতদের দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

কেএস

Link copied!