Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ০৩ মার্চ, ২০২৪,

শিশু লামিয়া হত্যা মামলায় মায়ের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

ফেনী প্রতিনিধি

ফেনী প্রতিনিধি

ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৪, ০৫:৫৯ পিএম


শিশু লামিয়া হত্যা মামলায় মায়ের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

ফেনীর পরশুরাম উপজেলার উম্মে সালমা লামিয়া (৭)  হত্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত শিশুটির মা আয়েশা আক্তারের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) ফেনীর আমলি আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাতেমাতুজ জোহারা এ রিমান্ড আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, লামিয়ার পিতা নুরুন্নবীর দায়েরকৃত মামলায় নিহত শিশুটির মা আয়েশাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে হাজির করা হয়। একইসাথে হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত রহস্য উদঘাটনে তাঁর ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। আদালত ওইদিন রিমান্ড শুনানি না করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। রোববার শুনানি শেষে  তাঁর ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত ।

এর আগে গত মঙ্গলবার রাতে সন্তান হত্যার ঘটনায় লামিয়ার পিতা মো. নুরুন্নবী বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি করে পরশুরাম থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। এর পর ওই মামলায় রাতেই লামিয়ার মা আয়েশা আক্তার ও সৎমা রেহানা আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ।

দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গত বৃহস্পতিবার সকালে এ হত্যা মামলায় আয়েশাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ ও সৎমা রেহানাকে শিশুটির পিতা এবং মামালার বাদী নুরুন্নবীর জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

পরশুরাম থানার ওসি মো. শাহাদাত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পল্লী বিদ্যুতের কর্মী পরিচয় দিয়ে ঘরে ঢুকে যারা এ হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে ওই দুই যুবককে শনাক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। সেই সঙ্গে অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে নিহত লামিয়ার মা গ্রেপ্তারকৃত আয়েশার ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে আদালত ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, জেলার পরশুরাম পৌর এলাকার বাঁশপদুয়া গ্রামে গত মঙ্গলবার দুপুরে হেলমেট পরা দুই যুবক মো. নুরুন্নবীর ভাড়া বাসায় গিয়ে নিজেদের পল্লি বিদ্যুতের কর্মী পরিচয়ে ঘরের  দরজা খুলতে বলেন। এ সময় তাঁর দুই শিশুসন্তান দরজা খুলে দিলে ওই দূর্বৃত্তরা ভেতরে ঢুকে শিশু লামিয়াকে হাত-পা ও মুখ বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

এআরএস

Link copied!