Amar Sangbad
ঢাকা শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪,

এমডির যোগ্যতা যাচাইয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক

মার্চ ৩, ২০২৪, ০৯:২৯ পিএম


এমডির যোগ্যতা যাচাইয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পদে নিয়োগ ও পুনঃনিয়েগের পূর্বে যোগ্যতা ও উপযুক্ততা মূল্যায়নের জন্য একটি কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই কমিটির সদস্য সংখ্যা হবে ৪ জন। কমিটির সভাপতি ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডেপুটি গভর্নর, সদস্য ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক, ডিপার্টমেন্ট অব অফসাইট সুপারভিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক এবং সদস্য সচিব হিসেবে থাকবেন ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ, ডিভিশন-২ এর পরিচালক।

রোববার এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, ব্যাংকের সার্বিক অবস্থা ও বিদ্যমান প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণপূর্বক ঋণ শৃঙ্খলা, উন্নতি, উৎকর্ষ, প্রযুক্তি, উদ্ভাবন সর্বোপরি আমানতকারীদের আস্থা এবং গ্রাহক সেবা বৃদ্ধিতে তাঁর কর্মপরিকল্পনার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের অবহিত হওয়া আবশ্যক। তাই ব্যাংকের এমডি হিসেবে মনোনীত ব্যক্তির যোগ্যতা, উপযুক্ততা, দায়িত্বের প্রতি অঙ্গীকার, অভিজ্ঞতা, বয়স ও নেতৃত্বের গুণাবলীর বিষয়াদি যাচাইয়ের লক্ষ্যে ৪ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সার্কুলারে কমিটির কর্ম পরিধি নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে ব্যাংকের এমডি হিসেবে সাক্ষাৎকার গ্রহণের লক্ষ্যে কমিটি কর্তৃক নির্ধারিত তারিখ, সময় ও স্থানে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ মনোনীত ব্যক্তিকে পাঠানো জন্য ব্যাংকের চেয়ারম্যান বরাবর পত্র পাঠাবে কমিটি।

প্রার্থীর দায়িত্বের প্রতি অঙ্গীকার, অভিজ্ঞতা, কর্মদক্ষতা, বয়স ও নেতৃত্বের গুণাবলীর বিষয়াদি যাচাই। মনোনীত ব্যক্তি/ব্যক্তিগণ পূর্বে কোনো ব্যবস্থাপনা পরিচালক/প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে অধিষ্ঠিত থাকলে তাঁর সে সময়ের কর্মকদক্ষতা মূল্যায়ন। সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের সার্বিক অবস্থা ও বিদ্যমান প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণপূর্বক ঋণ শৃঙ্খলা, উন্নতি, উৎকর্ষ, প্রযুক্তি, উদ্ভাবন সর্বোপরি আমানতকারীদের আস্থা এবং গ্রাহক সেবা বৃদ্ধিতে মনোনীত ব্যক্তি কীভাবে অবদান রাখবেন সে সম্পর্কে তাঁর নিজের স্বাক্ষরিত কর্মপরিকল্পনার মূল্যায়ন করে সিদ্ধান্ত নিবেন কমিটির সদস্যরা।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক বা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগের বিষয়ে উক্ত কমিটির ইতিবাচক সুপারিশের ভিত্তিতে বাংলাদেশ ব্যাংক তাঁর নিযুক্তি বা পুনঃনিযুক্তির অনুমোদন প্রদান করবে। মনোনীত ব্যক্তির যোগ্যতা, উপযুক্ততা, দায়িত্বের প্রতি অঙ্গীকার, অভিজ্ঞতা ও নেতৃত্বের গুণাবলীর বিষয় কমিটির নিকট ইতিবাচক ও গ্রহণযোগ্য মর্মে বিবেচিত না হলে নিয়োগের অনুমোদন না দেয়ার কারণ লিপিবদ্ধ করে পত্রের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের চেয়ারম্যানকে অবহিত করা হবে।

ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের অবগতি ও প্রয়োজনীয় কার্যক্রমের জন্য এ সার্কুলার জারির অব্যবহিত পরবর্তী পরিচালনা পর্ষদের সভায় সার্কুলারের বিষয়বস্তু নিয়ে একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ কার্যপত্র উপস্থাপন করতে হবে। এ ছাড়া সার্কুলারটি ব্যাংকের সকল কর্মকর্তাদের নজরে আনার ব্যবস্থা করতে হবে।

এ উদ্যোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর সালেহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ব্যাংকের সুশাসন আনতে হলে প্রথমে পরিচালকদের কন্ট্রোল করতে হবে। এমডি নিয়োগের জন্য আগে থেকেই টেস্টিং সিস্টেম আছে। সেগুলো ঠিকমতো বাস্তবায়ন করলেই হয়। নতুন করে সার্কুলার জারি করে তাদের ভাইভা নেওয়ার যুক্তি কি তা বোধগম্য নয়।

জাহাঙ্গীর/ইএইচ

Link copied!