Amar Sangbad
ঢাকা সোমবার, ২০ মে, ২০২৪,

বুড়িগঙ্গা পাড়ের সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে : ঢাকা জেলা প্রশাসক

আদালত প্রতিবেদক

আদালত প্রতিবেদক

মে ২২, ২০২৩, ০৬:০৯ পিএম


বুড়িগঙ্গা পাড়ের সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে : ঢাকা জেলা প্রশাসক

অবৈধ ভূমি দখলকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে ঢাকা জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান বলেছেন, ঢাকা শহরে বুড়িগঙ্গা নদীর দু‍‍`পাশে একটা অবৈধ স্থাপনাও থাকবে না। সবগুলো উচ্ছেদ করা হবে। যারা এগুলো করছেন, তারা নিজেরা ভুল করছে।

সোমবার (২২ মে) ‘ভূমি সেবা সপ্তাহ-২০২৩’ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন। তিনি বলেন, ২০২৫-২৬ সালের মধ্যেই আপনারা বুড়িগঙ্গা পাড় মুক্ত দেখতে পাবেন। এতে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেলের প্রবাহ নির্বিঘ্ন হবে। বুড়িগঙ্গা পাড়ের অবৈধ স্থাপনা যত বড় বা বহুতলই হোক না কেন আমরা তা অবশ্যই উচ্ছেদ করবো।

২২-২৮ মে পর্যন্ত সপ্তাহ ব্যাপী এ কার্যক্রমে নানাবিধ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ঢাকা জেলা প্রশাসন। এ উপলক্ষে সকল ভূমি অফিসে ভূমি সেবা ও তথ্য বুথ স্থাপন, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও সেবা প্রার্থীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণদের নিয়ে  আলোচনা সভা, সেমিনার, র্যালি করা হবে। এ সব কার্যক্রমের মাধ্যমে স্মার্ট ভূমি সেবা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ই-নামজারী, অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর প্রদানসহ নানাবিধ উদ্যোগের ব্যাপারে জনগনকে সচেতন করা হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, ভূমি সংক্রান্ত সেবা আরো কার্যকর করতে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু করেছি। ১৪ এপ্রিল থেকে অনলাইন ভূমি সেবার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এক্ষেত্রে আমরা নামজারীকে বেশী গুরুত্ব দিয়েছি। এখন থেকে নামজারীর সকল কাজ অনলাইনে হবে। ঢাকায় মাত্র নয় দিনে নামজারী সম্পন্ন করে আমরা নজির স্থাপন করেছি।

জেলা প্রশাসক বলেন, ভূমি মন্ত্রণালয়ের সাথে বেশীর ভাগ মানুষের সম্পর্ক রয়েছে। তাই এ ক্ষেত্রে ভোগান্তির মাত্রাও বেশী। আস্তে আস্তে ভূমি সেবা নিয়ে মানুষের ভূগান্তি কমে গেছে। ই-নামজারী, ই-পর্চা, ই-নকশাসহ স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে অনলাইন সেবা চালু করেছি।

তিনি আরো বলেন, এ যাবত আমরা ৫৬ একর খাস জমি উদ্ধার করা করেছি। হাজারীবাগে ১০০ কোটি এবং রমনায় ২০০ কোটি টাকা মূল্যমানের সম্পত্তি উদ্ধার করেছি। দখলকৃত সরকারি পরিত্যক্ত সম্পত্তি উদ্ধারে আমরা অভিযান চালাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমরা প্রতি সপ্তাহের শুক্র ও শনিবার ছুটির দিন হওয়ায় এ দুইদিন ছদ্মবেশে বের হয়ে বিভিন্ন জায়গা ঘুরে খাসজমি পরিদর্শন করছি এবং দখল হওয়া খাসজমি উদ্ধারে অক্লান্তভাবে কাজ করছি।

এ সময় অবৈধ ভূমি দখলকারীদের ব্যাপারে তথ্য প্রমাণ দিয়ে সহায়তা করার জন্য তিনি সকলের সহায়তা চেয়েছেন।

আরএস
 

Link copied!