Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

ফেনীতে বিভাগীয় সম্মেলনে ইনু

‍‍`সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে হবে‍‍`

নিজস্ব প্রতিবেদক

সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২, ০৩:৪৭ পিএম


‍‍`সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে হবে‍‍`

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, একাত্তরের পরাজিত চিরশত্রু জামায়াত-বিএনপি সহ জঙ্গীগোষ্ঠীকে বর্জন ও পরাজিত করার রাজনৈতিক সংগ্রামের সাথে সমানতালেই জনগণের দৈনন্দিন জীবনের দুঃখ, কষ্ট দূর করা, দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক অযৌক্তিক ঊর্ধগতি রোধ করতে বাজার সিন্ডিকেট দমন, দুর্নীতিবাজ, চাটার দল, লুটেরা, দলবাজী, ক্ষমতাবাজী বন্ধ, বৈষম্যের অবসান করতে বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দিতে হবে। সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ফেনী শহরের গ্র্যান্ড সুলতান কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সাবেক তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের রাজনীতিতে বর্তমান অস্থিরতা, সংঘাত, সংঘর্ষ নতুন নয়। এটা ৫২, ৭১, ৭৫ এর পুরাতন বিরোধেরই বহি:প্রকাশ। স্বাধীনতার ৫০ বছর অতিক্রান্ত হলেও এ বিরোধের সমাধান ও মীমাংসা হয়নি। ৫২ ও ৭১ এর মীমাংসিত বিষয়সমূহ অমীমাংসিত করা, ঐতিহাসিক সত্যকে অস্বীকার করার রাজনীতিই এ বিরোধের মূল কারণ। ৫২ ও ৭১ বিরোধী, বাংলা, বাঙালি, বাংলাদেশ, স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধবিরোধী, পাকিস্তানপন্থার রাজনীতি সমাজে চাপিয়ে দিয়ে জাতিকে বিভক্ত করে বিরোধের রাজনীতিকে স্থায়ী রূপ দিয়েছে। বিএনপি-জামায়াত-হেফাজত সহ ধর্মান্ধ, সাম্প্রদায়িক, জঙ্গীবাদী, উগ্রবাদী শক্তিসমূহ এ বিরোধের রাজনীতির ধারক ও বাহক।

এরা বাঙালির আত্মপরিচয়, ভাষা, সংস্কৃতি, স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সংবিধান মানে না। এরা ১৯৭১ সালে পাকিস্তানী হানাদার বাহনীর গণহত্যা ও রাজাকার, আলবদর, যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষে পক্ষে সাফাই গায়। বঙ্গবন্ধুর হত্যকারীদের পক্ষে সাফাই গায়। এরা স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের রাজনৈতিক ধারাকে নিশ্চিহ্ন করতে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে, শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে গ্রেনেড হামলা চালিয়েছে। তাদেরকে রাজনীতির মাঠ থেকে চির দিনের জন্য বিদায় করার সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

ইনু আরো বলেন, বাঙালি, বাংলা, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি যতদিন রাজনীতির মাঠে থাকবে ততদিন দেশের রাজনীতি অস্থিরতা, সংঘর্ষ, সংঘাত, অশান্তির অবসান হবে না।

তিনি আরো বলেন, বাংলা, বাঙালি, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি, বাংলাদেশ রাষ্ট্রের চিরশত্রুদের রাজনৈতিকভাবে পরাজিত, দমন, ধ্বংস করেই রাজনীতি ও সমাজে স্থায়ী শান্তি অর্জন করতে হবে। এটা শেখ হাসিনার একার ক্ষমতায় থাকার বিষয় না, সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হয়েই বাংলাদেশ রাষ্ট্রের চিরশত্রু পাকিস্তানপন্থার রাজনীতির ধারক বাহক বিএনপি, জামায়াতসহ ধর্মান্ধ সাম্প্রদায়িক, জঙ্গীবাদী, উগ্রবাদী শক্তিকে বর্জণ ও ধ্বংস করার দায়িত্ব নিতে হবে।

জাসদের ফেনী জেলা সভাপতি নুরুল আমিনের সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক নাঈমুল হাসান জুয়েলের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, স্থায়ী কমিটির সদস্য নুরুল আকতার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নাদের চৌধুরী, মির্জা মো. আনোয়ারুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নুরুন্নবী ও জসিম উদ্দিন বাবুল প্রমুখ।

সভায় জাসদের চট্টগ্রাম মহানগর, চট্টগ্রাম উওর, চট্টগ্রাম দক্ষিণ, কক্সবাজার, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, রাঙামাটি, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর জেলা কমিটি এবং এ সকল জেলা কমিটির অধীনস্থ উপজেলা, থানা ও পৌরসভা কমিটির নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।

Link copied!