Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৪,

‘গাজার শিশুরা শিক্ষা দিচ্ছে কীভাবে মাতৃভূমিকে ভালোবাসতে হয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪, ০৮:০১ পিএম


‘গাজার শিশুরা শিক্ষা দিচ্ছে কীভাবে মাতৃভূমিকে ভালোবাসতে হয়’
ছবি: আমার সংবাদ

ইন্তিফাদা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৪র্থ আন্তর্জাতিক কুদস সপ্তাহ পালিত হয়েছে। রোববার (১৮ জানুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এশিয়াটিক সোসাইটি অডেটোরিয়ামে এ কুদস সপ্তাহ পালিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, তুরস্ক দূতাবাসের রিলিজিয়াস অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক কো-অর্ডিনেটর ওজগুর ওজইউরেক। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন, নন্দিত কবি ও কথা সাহিত্যিক আব্দুল হাই শিকদারসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

প্রধান অতিথি বলেন, আজকে আমরা এমন একটি পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছি, যেখানে বলার জন্য আমাদের শব্দ ভাণ্ডারে আর কোন শব্দ ব্কি নেই। গত ৫ মাসে ২৮ হাজারেরও বেশি নিরীহ বেসমারিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছে৷ ১৫ লাখের বেশি মানুষকে ঘরবাড়ি ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে।

তিনি বলেন, অতীত থেকে বর্তমান পর্যন্ত প্রায় এক লাখ ফিলিস্তিনি নাগরিককে হত্যা হয়েছে। ঘর বাড়ি ছেড়ে প্রায় ৭৫ লাখ বেসামরিক নাগরিক। বর্তমানে গাজায় প্রতিদিন ২০ শিশু হত্যা হচ্ছে, মা-বোনদের নির্যাতন করছে। ফিলিন্তিনের মানুষরা খাদ্য অভাবে প্রকাশ্য বিড়াল ও গাধার মাংস খাচ্ছে। এর চেয়ে বড় নির্মমতা আর কি হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, আজ ফিলিস্তিনে যা গঠছে তার প্রতিবাদ করা মুসলিম হওয়া জরুরি নয়, মানুষ হলে নীরব থাকতে পারে না। প্রত্যেককে এ গণহত্যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা উচিত। আজ গাজার শিশুরা আজ আমাদের শিক্ষা দিচ্ছে কীভাবে মাতৃভূমিকে ভালোবাসতে হয়।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য কবি আব্দুল হাই শিকদার বলেন, ফিলিস্তিনের গাজায় ইজরায়েলি বাহিনী কর্তৃক যে হত্যাযজ্ঞ চলছে তা বন্ধে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি) ওপর ভরসা করে কোন লাভ নেই। আমেরিকার মদদে আজ এই নির্মম গণহত্যা চলছে। আরব দেশগুলো খুব দ্রুত এ বিষয়ে একজোট হয়ে কাজ করা উচিত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক যুবায়ের মোহাম্মদ এহসানুল হক বলেন, আরবদের কাজ আরবে দর করতে হবে, মুসলিমদের কাজ মুসলিমদেরই করতে হবে। তিনি বলেন, ফিলিস্তিনিরা পুরো ভূখণ্ডের স্বাধীনতা চায়। তাদের সে স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিতে আরব বিশ্বকে কিছু করা উচিত।

আল ইন্তিফাতা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও ফিলিস্তিনি ওলামা পরিষদের প্রতিনিধি মুহাইমিনুল হাসান রিয়াদ বলেন, গত ৭ অক্টোবর থেকে ফিলিস্তিনের গাজায় যে গণহত্যা চলছে, তা বিশ্ব স্যাটেলাইট মিডিয়ার মাধ্যমে পুরো বিশ্ব দেখেছে। কিন্তু মুসলিম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ থেকে যে রকম প্রতিবাদ হওয়া প্রয়োজন ছিল, সে রকম হয়। এটি আমাদের জন্য এক রকম লজ্জার।

ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয়সহ দেশের তরুণ সমাজকে ফিলিস্তিনে ইজরায়েলি গণহত্যার বিষয়ে সোচ্চার হওয়ার আহ্বানও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক কুদস সপ্তাহের মাধ্যমে সালাহুদ্দিন আইউবি কর্তৃক ক্রুসেডারদের হাত থেকে ইসরা-মেরাজ স্মৃতিধন্য পবিত্র মসজিদুল আকসার বিজয়কে স্মরণ করা হয়। জেরুজালেম ও ফিলিস্তিন ইস্যুতে মুসলিম উম্মাহর মধ্যে সচেতনতা তৈরি করাই উদ্যোগটি উদ্‌যাপনের প্রধান লক্ষ্য।

এআরএস

Link copied!