Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

‍‍`আমি পরিবার ও দেশের বোঝা হবো না‍‍`

বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধি

বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধি

সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২২, ০৫:২৮ পিএম


‍‍`আমি পরিবার ও দেশের বোঝা হবো না‍‍`

২০২১ সালের ২৮ অক্টোবর সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন সে বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থী নাটোরের বাগাতিপাড়ার কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের শিক্ষার্থী ফারিহা হোসেন সাফা।

ওই সড়ক দুর্ঘটনায় তাকে লাইফ সাপোর্টে থাকতে হয়। সেকারণে তিনি ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেননি। কিন্তু তার অদম্য প্রতিভা দমিয়ে দিতে পারেনি শিক্ষা জ্ঞান ও এসএসসি পরীক্ষা দেবার ইচ্ছা শক্তিকে।

ফারিহা হোসেন সাফার ভাষায়, আমি পরিবার ও দেশের বোঝা হবো না। আমাকে ভালো ফলাফল করতেই হবে।

সাফার বাবা কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট স্যপার কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষিক ফারুক হোসেন জানান, তার শশুরের গুরুত্বর অসুস্থতার খবরে স্ত্রী ও মেয়ে ফারিহা হোসেন সাফাকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে টাংগাইলে যাচ্ছিলেন এসময় যমুনা সেতুর পূর্ব পাশে হঠাৎ করে বাইক থেকে পড়ে যায় সাফা।

এতে তার শরীরের কোন জায়গায় আঘাত না পেলেও সে মাথায় আঘাত পায়। আর সেই আঘাতের কারণে তাকে লাইফ সার্পোটে থাকতে হয় আটদিন আর আইসিইউতে থাকতে হয় ২২ দিন। সে কারণে সে বছরের ১৪ নভেম্বরে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেনি সাফা।

বর্তমানে পোস্ট ট্রমাটিক সেরিব্রাল পালসিজনিত রোগী সাফা। এ বছর সে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। তবে তাকে সাহায্য নিতে হয়েছে স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) এর। উপজেলার মিশ্রিপাড়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তৃষাকে এই স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) হিসেবে রাখা হয়েছে।

ফারিহা অষ্টম শ্রেণীর জেএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন (এ+) পেয়ে উত্তীর্ণ হয়। কিন্তু ঐ দুর্ঘটানার কারণে আগের তুলনায় বর্তমানে চলা-ফেরা, লেখা-পড়াসহ সকল কাজ-কর্ম খুবই ধীর গতি হয়ে গেছে তার।

সে কারণে এই পরীক্ষায় তার জন্য স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) নিতে হয়েছে বলে জানান, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা সাফার মা শামীমা আক্তারী।

শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাগাতিপাড়া সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের কেন্দ্রসচিব আব্দুল লতিফ বলেন, এতবড় একটি দুর্ঘটনার পরেও সাফার এমন আগ্রহ, অদম্য ইচ্ছা শক্তি ও মনোবলের জন্য তাকে সাধুবাদ জানায়। সাফা বাংলা ১ম ও ২য় দুটো পত্রের পরীক্ষায় ভালো দিয়েছেন বলে জেনেছেন। তিনি আশা করেন এই পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করবেন সাফা।

তিনি আরও বলেন, অসুস্থ (পোস্ট ট্রমাটিক সেরিব্রাল পালসিজনিত রোগী) পরীক্ষার্থী হিসেবে অতিরিক্ত ১৫ মিনিট সময় পাচ্ছেন বাগাতিপাড়ার কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের শিক্ষার্থী ফারিহা হোসেন সাফা।

এআই

Link copied!