Amar Sangbad
ঢাকা সোমবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ, চলাচলে বাধা

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২, ০৭:১৮ পিএম


জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ, চলাচলে বাধা

নেত্রকোনা সদর উপজেলায় পৈতৃক জায়গা দখল করে চলাচলের রাস্তায় ঘরনির্মাণের অভিযোগ ওঠেছে হাসেন মিয়া (৫৫) ও তার ভাইদের বিরুদ্ধে। চলাচলের রাস্তায় ঘর নির্মাণের ফলে সাতটি পরিবার গত ছয়মাস ধরে অন্যের বাড়ির ভেতর দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।

এ নিয়ে ভুক্তভোগী আলী আহমদ (৬৮) শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) নেত্রকোনা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।  

স্থানীয় বাসিন্দা, লিখিত অভিযোগ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সিংহেরবাংলা ইউনিয়নের ভদ্রপাড়া গ্রামের বাসিন্দা আলী আহমদ পৈতৃকভাবে ভদ্রপাড়া মৌজায় ৭৬ শতক জমি পান। কিন্তু  বাড়ির ৮ শতক জায়গা ছাড়া বাকি ৬৮ শতক জায়গা চাচাত ভাই হাসেন মিয়া, চান মিয়া, গফুরমিয়া, শাহজাহান মিয়া, সুমন মিয়া, নুর মোহাম্মদ ও নুর আমিন দীর্ঘদিন ধরে দখল করে রাখেন।

গত মার্চে আলী আহমদের বাড়ি থেকে বের হওয়ার রাস্তায় চাচাতো ভাই সুমন মিয়া ও গফুর মিয়া জোর করে একটি টিনের ঘর নির্মাণ করেন। এতে করে আলী আহমদ ও তার ছয় ছেলের পরিবার অবরোদ্ধ হয়ে পড়ে। নিরুপায় হয়ে পরিবারগুলো বর্তমানে প্রতিবেশী কয়েকটি বাড়ির ভেতর দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।

এ নিয়ে স্থানীয় ভাবে শালিস করেন মাতবররা। কিন্তু মিমাংসা না হওয়ায় স্থানীয় সিংহের বাংলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছ লিখিত অভিযোগ দেন আলী আহমদ। চেয়ারম্যান ইউনিয়ন পরিষদের দুই পক্ষকে নিয়ে বসতে চাইলে সময় ক্ষেপন করেন ইজ্জত আলীর ছেলেরা। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার পরিষদে বসার দিন ধায্য করা হলেও প্রতিপক্ষের লোকজন অংশ নেননি। শনিবার এ নিয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দেন আলী আহমদ।

সিংহের বাংলা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রতিবেশী আবদুল মোতালেব, মো. আবুল কাশেম, মো. ফারুক মিয়া, নাজিম উদ্দিন ও জুয়েল মিয়াসহ কয়েকজন জানান, অন্যায়ভাবে আলী আহমদের জায়গা জমি দখল করে রেখেছেন তার চাচাতো ভাইয়েরা। মাস ছয়েক আগে আলী আহমেদের বাড়ি থেকে বের হওয়ার নিজস্ব রাস্তায় ঘর নির্মাণ করায় পরিবারগুলো এখন চলাফেরা করতে অসুবিধা হচ্ছে। এ নিয়ে আমরা বেশ কয়েকবার দরবার করেছিলাম। কিন্তু নিষ্পত্তির বিষয়টি তাঁরা মানেননি। পরে পরিষদে চেয়াম্যান দরবার ডাকলেও তারা সেখানে যাননি।

আলী আহমদ বলেন, ‘পৈতৃকভাবেপ্রাপ্ত আমার ৫৪৪, ৫৭১, ৫৭৩, ৫৭৪,৫৭৬, ৫৮৩, ৫৯০ ও ৫৯১ দাগের ৬৮ শতক জায়গা জোর করে তারা দখল করে আছেন। এখন চলাচলের রাস্তায় ঘর উঠিয়ে পথ বন্ধ করে দিয়েছে। কিছু বললে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেন তারা।’

সিংহের বাংলা ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহসান খান বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা আছে। আলী আহমেদের কাগজপত্র দেখে প্রতিপক্ষকে ডেকেছিলাম। কিন্তু তারা আসেননি।’

জানতে চাইলে অভিযুক্ত হাসেন মিয়া, তার ভাই সুমন মিয়া ও নুরুল আমিন জানান, আমাদের বাবা গত ৩ সেপ্টম্বর মারা যান। তাই পরিষদে শালিসে যেতে পারিনি। তারা জায়গা পেলে আমরা দিয়ে দিব। চলাচলের রাস্তাটি আমাদের দখলে ছিল তাই সেখানে ঘর তুলেছি।

নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার শাকের আহমেদ বলেন, ‘অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

কেএস

Link copied!