community-bank-bangladesh
Amar Sangbad
ঢাকা শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪,

ফরিদপুরে ডিবি পুলিশের ওপর হামলা, দুই ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুর প্রতিনিধি

জুন ১০, ২০২৪, ০৫:৫৮ পিএম


ফরিদপুরে ডিবি পুলিশের ওপর হামলা, দুই ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে সরকারি কাজে বাধা এবং গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের উপর হামলা,মারপিট ও আহত করার ঘটনায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ মামলায় ওই দুই ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রবিবার (১০ জুন) বিকেল ৬টার দিকে বোয়ালমারী পৌর সদরের নাট মন্দির সংলগ্ন স্টেশন রোডে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতার হওয়া ছাত্রলীগের ওই দুই নেতা হলেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ মুর্তজা তমাল (৩২) এবং সহ সভাপতি মো. আরিফুল ইসলাম রনি (২৮)। এরা দুজন বোয়ালমারী উপজেলা সদরের কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজ এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়,পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়,প্রতি রবিবারে বোয়ালমারীতে হাট বসে। ভাঙা-চোরা রাস্তা ও হাটের কারনে নাট মন্দির সংলগ্ন স্টেশন রোডে প্রচুর যানজট ছিল। ওই যানজটের মধ্যে গোয়েন্দা( ডিবি) পুলিশের একটি গাড়ি যাচ্ছিল। এ সময় তাদের শরীরের পুলিশের পোশাক ছিল না। ওই গাড়ির পিছনে ছাত্রলীগের ওই দুই শীর্ষ নেতার মোটরসাইকেল যাচ্ছিলেন। যানজটের কারনে ডিবির গাড়ি সামনের দিকে এগোতে পারছিল না। কিন্তু পিছন থেকে ছাত্রলীগ নেতাদের বহনকারী মোটর সাইকেল থেকে বার বার হর্ন বাজানো হচ্ছিল। এ অবস্থায় ডিবি পুলিশের গাড়ি থেকে এক কনস্টেবল নেমে ওই দুই মোটরসাইকেল আরোহীকে বলেন, দেখছেন যানজটের কারনে গাড়ি সামনে এগোতে পারছে না আপনারা বার বার হর্ন দিচ্ছেন কেন। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতারা আজেবাজে মন্তব্য করে এবং ডিবির ওই কনস্টেবলকে গালাগালি ও পরে মারপিট করে। এতে ওই কনস্টেবল আহত হন।

ডিবি পুলিশের আহত ওই কনস্টেবলের নাম মির্জা গোলাম গাউস। তাকে আহত অবস্থায় ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. হান্নান বাদী হয়ে বোয়ালমারী থানায় রবিবার রাতে একটি মামলাটি দায়ের করেন। ওই দুই ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেফতার করে রাতেই বোয়ালমারী থেকে ফরিদপুরে নিয়ে আসা হয়।

এ ব্যাপারে বোয়ালমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত সিদ্দিকী বলেন, আমাদের জেলার সভাপতি আসছিলেন। ডিবির গাড়ি ও যানজটের কারণে একটু দুই পক্ষের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। সভাপতি ছাত্রলীগের যোগ্য অভিভাবক। আমরা প্রশাসনকে সহযোগিতা করি। ভুল বুঝাবুঝির এ ঘটনায় মামলা হলে ছাত্রসমাজের কাছে ভুল তথ্য যাবে।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ তামজিদুল রশিদ চৌধুরী রিয়ান বলেন, খবর পেয়ে আমি রাতে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। পুলিশের সাথে আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। একটা ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে। আশা করছি দ্রুত বিষয়টি মিটে যাবে।

এ ব্যাপারে বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হান্নান বাদী হয়ে বোয়ালমারী থানায় রবিবার রাতে একটি মামলাটি দায়ের করেছেন।

এ বিষয়ে গোয়েন্দা(ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ মতিন বলেন, সরকারি কাজে বাধা এবং গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের উপর হামলা, মারপিট ও আহত করার ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে।

আরএস

Link copied!