Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪,

ঝালকাঠিতে যুবলীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

নভেম্বর ১৬, ২০২৩, ০৯:০১ পিএম


ঝালকাঠিতে যুবলীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫

ঝালকাঠি জেলা যুবলীগের দু‍‍`গ্রুপের দ্বন্দ্বে সংঘর্ষে রূপ নেয়। এতে উভয় গ্রুপের ৫ জন আহত হয়েছে। আহদের মধ্যে তিনজন বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়ে এবং অপর দু‍‍`জন ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে শহরের পোস্ট অফিসের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এসময় উভয় পক্ষের কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতরা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা হরতাল-অবরোধ বিরোধী মহড়া দেয়। একপর্যায়ে পোস্ট অফিসের সামনে গেলে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করীম জাকির এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা সৈয়দ মিলন সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে রূপ নেয়।

এতে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা সৈয়দ হাদিসুর রহমান, কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তরিকুল ইসলাম অপু, হারুন হাওলাদার ওরফে টাইগার হারুন, সাগর ও মামুনুর রশিদ মামুন আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহত মামুনুর রশিদ জানান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ আল মাহমুদ, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করীম জাকির ও যুবলীগ নেতা কামাল শরীফের নের্তৃত্বে আমরা হরতাল-অবরোধ বিরোধী মহড়া শেষে পোস্ট অফিসের সামনে হোটেলে নাস্তা করছিলাম। সামনে জটলা দেখে নাস্তা শেষ করে বের হবার সাথে সাথে মুখোশধারী কয়েকজনে হামলা চালায়। তবে তাদের আমি চিনতে পেরেছি।  মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তরিকুল ইসলাম অপু জানান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সৈয়দ হাদিসুর রহমান মিলন (সৈয়দ মিলন) ভাইয়ের নেতৃত্বে জামায়াত-বিএনপি আহুত হরতাল-অবরোধ বিরোধী মহড়া শেষে ফায়ার সার্ভিস মোড় দিয়ে ডাক্তারপট্টি যাচ্ছিলাম। পোস্ট অফিসের সামনে গেলেই আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। আমাদের কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। আমরা এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছি।

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন সরকার বলেন, সকালে যুবলীগের দু‍‍`গ্রুপের সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এআরএস

Link copied!