Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪,

কাপ্তাইয়ের দুর্গম পাহাড়ে ফের বৈদ্যুতিক টাওয়ারের যন্ত্রপাতি চুরি

কাপ্তাই (রাঙামাটি) প্রতিনিধি

কাপ্তাই (রাঙামাটি) প্রতিনিধি

নভেম্বর ২৮, ২০২৩, ০৫:০২ পিএম


কাপ্তাইয়ের দুর্গম পাহাড়ে ফের বৈদ্যুতিক টাওয়ারের যন্ত্রপাতি চুরি

সাত মাসের ব্যবধানে আবারও রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার দুর্গম পাহাড়ে অবস্থিত জাতীয় গ্রিডের বৈদ্যুতিক টাওয়ারের যন্ত্রপাতি চুরি করে নিয়ে গেছে দুর্বত্তরা। এতে আবারও মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়েছে জাতীয় গ্রীডের টাওয়ারের সঞ্চালন লাইন। কাপ্তাই উপজেলার সীতারঘাট এলাকার দুর্গম পাহাড়ের ওপর জাতীয় গ্রিড লাইনের সুউচ্চ টাওয়ারের গুরুত্বপূর্ণ ২০টি টাওয়ার মেম্বার এঙ্গেল ও পিজি জয়েন্ট এর নাট বল্টু চুরির ঘটনা ঘটেছে। এতে যেকোন সময় টাওয়ার ধসে জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুৎ সঞ্চালন বন্ধসহ মারাত্মক দুর্ঘটনার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) চন্দ্রঘোনা-কাপ্তাই ১৩২/৩৩ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্রের সহকারি প্রকৌশলী মো. আলমগীর হোসেন টাওয়ারে চুরির ঘটনায় কাপ্তাই থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অভিযোগ পত্র থেকে জানা গেছে, কাপ্তাই উপজেলাধীন জাতীয় গ্রিডের ১৩২ কেভি সীতারঘাটস্থ চন্দ্রঘোনা-কাপ্তাই সঞ্চালন লাইনের ৯২৬ নং টাওয়ারের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পরিমাপের প্রায় ২০টি মেম্বার এঙ্গেল এবং পিজি জয়েন্টের নাট বল্টু কে বা কারা চুরি করে নিয়ে যায়। বর্তমানে টাওয়ারটি মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। যেকোন সময় ওই টাওয়ার ধসে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ বিপর্যয়সহ বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করা হচ্ছে। চুরি হওয়া যন্ত্রপাতির বর্তমান বাজার মূল্য ৬ হাজার টাকা ধরা হয়। তবে টাওয়ারটি দুর্ঘটনায় পতিত হলে প্রাণহানীসহ বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানায়।

এদিকে গত ৭ মাস আগেও একই স্থানে জাতীয় গ্রীডের দুটি টাউয়ারের বিভিন্ন মেম্বার এঙ্গেল এবং নাট বল্টু চুরি করে নিয়ে গেছে এবং এই বিষয়ে পূর্বেও কাপ্তাই থানায় অভিযোগ দাখিল করা হয়েছিলো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জাতীয় পাওয়ার গ্রিড চন্দ্রঘোনা-কাপ্তাই ১৩২/৩৩কেভি গ্রিড উপকেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী প্রকৌশলী মো. আলমগীর হোসেন জানান, গত ২৭ নভেম্বর সঞ্চালন লাইন সংরক্ষণ ও পরিদর্শনকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, সীতারঘাট জাতীয় গ্রিডের টাওয়ার থেকে অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ মেম্বার এঙ্গেল ও পিজি নাট বল্টু কে বা কারা চুরি করে নিয়ে গেছে। এতে যেকোন সময় টাওয়ারটি ধসে জাতীয় গ্রিড লাইন মারাত্মক হুমকির মুখে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এছাড়া গত ৭ মাস আগে ৯ মে একই স্থাপনার টাওয়ার হতে এঙ্গেল চুরি যাওয়ায়। জাতীয় গ্রিড রক্ষায় দ্রুত ১৩ মে তা প্রতিস্থাপন করা হয়েছিলো। যা ৭ মাস পর আবার চুরি হয়ে গিয়েছে একই যন্ত্রাংশ। তাই চোর সনাক্ত করাসহ দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) কাপ্তাই থানায় একটি অভিযোগ দায়েরসহ বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে চিঠি দিয়ে অবগত করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এদিকে এবিষয়ে কাপ্তাই সার্কেল এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, চুরির বিষয়ে কাপ্তাই থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ সদস্য পাঠানো হয়েছে। এবিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এআরএস

Link copied!