Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪,

পেঁয়াজের বাজারে আবারও অস্থিরতা, কেজি ২৬০

আশুলিয়া (ঢাকা) প্রতিনিধি

আশুলিয়া (ঢাকা) প্রতিনিধি

ডিসেম্বর ৯, ২০২৩, ০৭:৪৯ পিএম


পেঁয়াজের বাজারে আবারও অস্থিরতা, কেজি ২৬০

পেঁয়াজ রপ্তানিতে ভারতের নিষেধাজ্ঞার পর হঠাৎ করে পেঁয়াজের বাজারে দেখা দিয়েছে অস্থিরতা। একদিনের ব্যবধানে কেজিতে দাম বেড়েছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা।

শুক্রবার রাতে খুচরা বাজারে যেই পেঁয়াজ কেজি ১৩০ থেকে ১৫০ টাকা ছিল। সেই পেঁয়াজ শনিবার দুপুর থেকে রাত পযর্ন্ত বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ২৬০ টাকা কেজি। হঠাৎ এ যেন পেঁয়াজের বাজারে রীতিমতো আগুন লেগে গেছে।

আশুলিয়ার বাইপাইলসহ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, মুহূর্তেই বেড়ে যাচ্ছে পেঁয়াজের দাম। রাতের থেকে সকালে কেজি প্রতি বেড়ে গেছে ৪০ থেকে ৬০ টাকা। অন্যদিকে সকালের থেকে দুপুরে বেড়েছে আরও ২০ থেকে ৩০ টাকা।

আবার দুপুর থেকে রাতে আবার বেড়েছে ৩০ থেকে ৫০ টাকা। সব মিলিয়ে একদিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা। তবে খুচরা ব্যবসায়ীরা জানান পাইকারি আড়তে দাম বেশি তাই তারা বেশী দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন।

বাইপাইল এলাকার খুচরা ব্যবসায়ী রাজু জানান, গতকাল দেশী পেঁয়াজ ছিল ১৩০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা। সকালে হঠাৎ আড়তে দাম বেড়ে যায়। এখন ২৪০ টাকা কেজি পাইকারী কিনছি। তাই বিক্রি করতে হচ্ছে ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা।

অন্যদিকে পাশের এক ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, গতকাল যেই পেঁয়াজ ১২০ থেকে ১৪০ টাকা পাইকারী বিক্রি করতাম। সেই পেঁয়াজ আজ বিক্রি করছি ২৪০ থেকে ২৫০ টাকা।

বাইপাইল আড়তের ঝিনাইদহ বাণিজ্যলয়ের মালিক সাহেব আলী বলেন, আমরা মুকাম থেকে মাল আনি। উনারা যে রেট (দর) দেন আমরা তার থেকে একটু বেশি বেচি (বিক্রি)। এর বেশি আমি কিছু বলতে পারবো না।

এ সময় অন্য ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বললে তারাও এমন মন্তব্য করেন।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ঢাকা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার মন্ডল আমার সংবাদকে বলেন, ডিজি মহোদয় আমাদেরকে নির্দেশনা দিয়েছেন যে, পেঁয়াজ যেহেতু আগের রেটে কেনা, সেহেতু আগের রেটেই বিক্রি করতে হবে। প্রয়োজনে আগের রেটে বিক্রির ব্যবস্থা করতে হবে। এ ব্যাপারে আমাদের যে বাজার মনিটরিং কার্যক্রম আছে, আমরা সেই অনুযায়ী কাজ করছি।

এইচআর

Link copied!