community-bank-bangladesh
Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪,

কুবিতে সাংবাদিক হেনস্তা, দেশজুড়ে প্রতিবাদ শাস্তির দাবি

কুবি প্রতিনিধি

কুবি প্রতিনিধি

জুন ১, ২০২৩, ০১:২১ পিএম


কুবিতে সাংবাদিক হেনস্তা, দেশজুড়ে প্রতিবাদ শাস্তির দাবি

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজা-ই-এলাহী (২০১৭ সালে বিলুপ্ত কমিটি) ও তার অনুসারী কতৃক গত (২৯ মে) দৈনিক যায়যায়দিন এর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (কুবিসাস) অর্থ সম্পাদক রুদ্র ইকবালকে হেনস্তার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। 

বিবৃতিতে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সংগঠনগুলো ঘটনার প্রতিবাদ এবং দোষীদের শাস্তির দাবি করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের সংগঠনগুলো বিবৃতিতে এসব নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। বিবৃতিতে বলা হয়, সাংবাদিকদের সাথে এ ধরনের ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ দিন দিন বেড়েই চলেছে, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়। 

ছাত্রলীগের এমন হিংস্র আচরণ স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়। পাশাপাশি ক্যাম্পাসে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিবেশ বজায় রাখতে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানায় সংগঠনগুলো।

বিবৃতি সমূহে সাংবাদিক নেতারা বলেন, অভিযুক্ত ছাত্রলীগ কর্মীদের দ্বারা বিভিন্ন সময় সংঘটিত অপকর্মের সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকদের উপর চড়াও হয়েছে রেজা-ই-এলাহি ও তার অনুসারীরা। গণমাধ্যমকর্মীদের হুমকি-ধমকি দিয়ে সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে চান তারা। 

এ ঘটনা তারই একটি অংশ। সাংবাদিকদের সঙ্গে ছাত্রলীগের পূর্ব পরিকল্পিত এমন আচরণ স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই আমরা। পাশাপাশি ক্যাম্পাসে স্বাধীন সাংবাদিকতার পথ সুগম ও সংবাদকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি এবং সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে এ ঘটনার বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান জানান নেতৃবৃন্দ।

সাংবাদিক নেতারা আরও বলেন, সাংবাদিকদের সঙ্গে এমন আচরণে আমরা মর্মাহত। সাংবাদিকদের হেনস্তা করা বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলার পরিপন্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ের সুষ্ঠু পরিবেশ রক্ষার্থে এ ধরণের উগ্রবাদী আচরণ দমন করতে হবে। 

প্রতিবাদ জানানো সাংবাদিক সংগঠনগুলোর মধ্যে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাব, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, পটুয়াখালী বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, বুটেক্স বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, চুয়েট সাংবাদিক সমিতি, হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতিসহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সংগঠনগুলো নিন্দা প্রকাশ করেন।

এর আগে গত (২৯ মে) দুই শিক্ষার্থীর মধ্যে মারামারির জেরে এক শিক্ষার্থীকে শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মারধরের ঘটনার কারণ জানেতে চাওয়ায় হেনস্তার শিকার হয়েছেন। এ সময় সাংবাদিকদেরকে উদ্দেশ্য করে  সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজা-ই-এলাহী  (২০১৭ সালে বিলুপ্ত কমিটি) রেজা-ই-এলাহি বলেন, ‘সাংবাদিকরা এখনও আমাকে চিনে না, আমি কে। এই ক্যাম্পাস কারো বাপের না। সাংবাদিকরা আমাদের কী করবে, দেখে নেব। গুন্ডামির কী দেখছে।’

এর আগে ঘটনার বিচার চেয়ে ভুক্তভোগী সাংবাদিক রুদ্র ইকবাল গত ৩০ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন। একইদিন বিকেল সাড়ে ৪ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্ত্বরে এ ঘটনার বিচার চেয়ে মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

এইচআর
 

Link copied!