Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ২২ মে, ২০২৪,

দুই হেলিকপ্টারের সংঘর্ষে ১০ নৌ-সেনা নিহত

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া:

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া:

এপ্রিল ২৩, ২০২৪, ১১:৩৬ এএম


দুই হেলিকপ্টারের সংঘর্ষে ১০ নৌ-সেনা নিহত

মালয়েশিয়ার লুমু শহরে ২ টি হেলিকপ্টার মাঝ আকাশে সংঘর্ষে বিধ্বস্ত হয়ে ১০ জন নৌবাহিনীর সদস্য ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ৯:৩২ মিনিটে নৌবাহিনীর ঘাঁটির কাছে প্রশিক্ষণ নেওয়ার সময় এই ভয়াবহ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এই তথ্য জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা (বারনামা) একটি হেলিকপ্টারে ছিল ৭ জন এবং অপর হেলিকপ্টার টি তে ছিল ৩ জন নৌ সেনা। দুর্ঘটনায় সবাই নিহত হয়েছে।  

সকালে লুমুতে রয়্যাল মালয়েশিয়ান নেভি (আরএমএন) ঘাঁটিতে দুটি মালয়েশিয়ান সশস্ত্র বাহিনীর হেলিকপ্টার মধ্য-আকাশে সংঘর্ষে ১০ জনের কেউ আর বেঁচে নেই বলে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।  M503-3 মেরিটাইম অপারেশনস হেলিকপ্টার (HOM) বোর্ডে সাতজন ক্রু ছিল, অন্য M502-6-এ তিনজন ছিল।

আগামী ৩ ও ৫  মে অনুষ্ঠাতব্য ৯০ তম নৌবাহিনী দিবস উদ্‌যাপন উপলক্ষ্যে একযোগে একাধিক হেলিকপ্টার গুলো নিয়মিত  প্রশিক্ষণ নিচ্ছিল। এই দুর্ঘটনার সময় মোবাইলে ধারণকৃত ২১ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

এই ভিডিওতে  দেখা যাচ্ছে একটি হেলিকপ্টার আরেকটি হেলিকপ্টারের পিছনের অংশের সাথে সংঘর্ষের পর  ২ টি হেলিকপ্টার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাটিতে পড়ে বিধ্বস্ত হয়ে আগুন ধরে যায়।  

রয়্যাল মালয়েশিয়ান নেভি (RMN) মঙ্গলবার পেরাকের RMN বেস লুমুতে ৯০ তম RMN ডে প্যারেড চলাকালীন দুটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ চিহ্নিত করার জন্য একটি তদন্ত বোর্ড গঠন করা হয়েছে। নৌ সদর দফতরের কৌশলগত যোগাযোগ শাখা একটি বিবৃতিতে বলেছে যে তদন্ত বোর্ড একটি TLDM মেরিটাইম অপারেশন হেলিকপ্টার (HOM-AW139) এবং একটি TLDM ফেনেক হেলিকপ্টার যেটি আজ সকালে ৯ টা ৩২ মিনিটে  বিধ্বস্ত হয়েছে তার বিষয়ে তদন্ত করবে৷

বিবৃতিতে বলা নিহত ১০ জনের অগ্নিদগ্ধ দেহ সনাক্ত করার জন্য লুমুট টিএলডিএম বেস সামরিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তারা আরও জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুর্ঘটনার যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে সেটি স্পর্শকাতর হওয়ায় প্রচার না করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।  

বিআরইউ

Link copied!