Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

চুল স্ট্রেইট করার আগেই ক্ষতি থেকে সাবধান হোন

আমার সংবাদ ডেস্ক

আগস্ট ৩০, ২০২২, ০৩:৫৪ পিএম


চুল স্ট্রেইট করার আগেই ক্ষতি থেকে সাবধান হোন

বর্তমানে কদর বেড়েছে স্ট্রেট চুলের । অনেকেই এখন পার্লারে ছোটেন চুল স্থায়ীভাবে স্ট্রেট করাতে। আর  স্ট্রেটনিং আয়রন ব্যবহার করা হয় সাময়িক সময়ের জন্য স্ট্রেট চুল পেতে। তবে শুধু আয়রন করলে চুল সাময়িকভাবে স্ট্রেট হয়।

কেবল কেমিক্যাল ট্রিটমেন্ট করালেই চুল দীর্ঘদিন স্ট্রেইট রাখা সম্ভব। তবে এটি কতটা ক্ষতিকর চুলের জন্য তা জানা নেই অনেকেরই। তাই সবারই উচিত চুল স্ট্রেইট করার আগা জেনে নেওয়া কতটা ক্ষতিকর এটি-

>> দীর্ঘদিন ধরে নিয়মিত কার্লিং আয়রন, হেয়ার স্ট্রেটনার, ফ্ল্যাট আয়রন, হেয়ার ড্রায়ারের মতো হিট স্টাইলিং সরঞ্জাম ব্যবহার করলে চুল আরও রক্ষ ও শুষ্ক হয়ে পড়ে। এছাড়া কেমিক্যাল ট্রিটমেন্ট করালে চুলের প্রাকৃতিক তেল নষ্ট হয়ে যায়।

>> স্ট্রেইট করানো পর চুল পড়া, অকালে পেকে যাওয়া, গোড়া আলগা হওয়া, জট পড়া, ডগা ফেটে যাওয়ার মতো একাধিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

>> চুলের ডগা ফেটে যাওয়ার সমস্যাও বাড়ায় স্ট্রেইটিং। এক্ষেত্রে চুল অতিরিক্ত শুষ্ক ও দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে দুর্বল চুল মাঝখান থেকে ভাঙতে শুরু করে।

>> নিয়মিত তাপ দিলে চুলের ফলিকলেরও মারাত্মক ক্ষতি হয়। চুল স্থায়ী ভাবে সোজা করতে যে রাসায়নিক ও হিট ব্যবহার করা হয় তা চুলের গোড়ার ক্ষতি করে, ফলে চুল ঝরা বাড়ে।

>> স্ট্রেইট করার কারণে স্ক্যাল্পের চুলকানিও বাড়ে। এর কারণ হলো, চুলের ফলিকলের ক্ষতি হলে স্ক্যাল্পে প্রাকৃতিক তেলের উৎপাদন কমে যায় হয়। ফলে স্ক্যাল্প রুক্ষ-শুষ্ক হয়ে ওঠে, চামড়া উঠতে থাকে ও ক্রমাগত চুলকানি হয়।

>> চুলের বৃদ্ধি বাধাগ্রস্ত হয় স্ট্রেইট করার কারণে। এছাড়া ঘন ঘন হেয়ার স্ট্রেইটনার ব্যবহার করলে চুলের কিউটিকল স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়, ফলে চুলের বৃদ্ধি কমে যায়।

সূত্র: বোল্ডস্কাই

আমারসংবাদ/আরইউ

Link copied!