Amar Sangbad
ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ, ২০২৪,

নতুন নামে গ্রীন ডেল্টা হাউজিং

গ্রাহকরা বলছেন প্রতারণার নতুন ফাঁদ!

মো. মাসুম বিল্লাহ

অক্টোবর ৫, ২০২৩, ০৭:০২ পিএম


গ্রাহকরা বলছেন প্রতারণার নতুন ফাঁদ!

গোল্ডসেন্ড এন্ড রিসোর্ট লিমিটেড নামে আবির্ভুত হয়েছে গ্রাহকদের শতকোটি টাকা আত্নসাৎকারী প্রতিষ্ঠান গ্রীন ডেল্টা হাউজিং এন্ড ডেভেলপমেন্ট (প্রা.) লিমিটেড।

জানা গেছে, পূর্বের কর্মকাণ্ড আড়াল করে নতুন নামে বিভিন্ন মাধ্যমে চটকদার বিজ্ঞাপনে গ্রাহক আকৃষ্ট করে কক্সবাজারের কলাতলীতে বে-স্যান্ডস, হিমছড়িতে বেষ্ট ওয়েষ্টার্ন প্লাস, বে-হিলস, কুয়াকাটায় বে-ব্রিজ ছাড়াও পদ্মাপাড়ের জাজিরা পয়েন্টে দ্যা গ্র্যান্ড পদ্মা রিসোর্ট নামে পাঁচ তারকা মানের হোটেলে সুইট রুম বিক্রয়ের নামে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। এতে গ্রাহকদের প্রতারিত হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, এই কোম্পানির মালিক বহু মামলার আসামি এবং বিতর্কিত গ্রীন ডেল্টা হাউজিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (প্রা.) লিমিটেডের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন ও তার ছেলে গ্রীন ডেল্টা ও গোল্ড স্যান্ডস হোটেল এন্ড রিসোর্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বেলাল হোসেন।

গ্রীন ডেল্টার প্রতারিত একাধিক গ্রাহক সাংবাদিকদের জানান, নতুন করে প্রতারণার জন্য গোল্ডস্যান্ড গ্রুপ নাম দিয়ে তারা নতুন কোম্পানি খুলে তারা তাদের পুরনো প্রতারণা ব্যবসা শুরু করেছে। আমরা সাধারণ মানুষরা বিভিন্ন মিডিয়ার কল্যাণে গ্রীন ডেল্টার প্রতারণার কথা জানতে পেরেছিলাম এবং কয়েকজন গ্রেপ্তারও হয়েছিল আর মালিকপক্ষরা আত্মগোপনে চলে গিয়েছিল। হঠাৎ নতুন মোড়কে একই ব্যক্তিরা বিগত কয়েক বছর যাবত সেই পুরনো কৌশল নিয়ে ব্যবসা শুরু করেছেন, যা অনেকেরই অজানা।

বেলাল হোসেন, দিলদার হোসেন, আমির হোসেন স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে বায়না চুক্তিতে জমি নিয়ে লোভনীয় বিভিন্ন প্রকল্পের সাইনবোর্ড টানিয়ে কম দামে ফ্ল্যাট বা সুইট রুম দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রচারণা শুরু করেছে। অথচ এরআগে তাদের প্রতারণা ফাঁস হওয়ায় গ্রাহকরা রাস্তায় নেমে মানববন্ধন, অফিস ঘেরাওসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। টাকা ফেরত চেয়ে মামলাও করেছিল প্রতিষ্ঠানটির মালিক নূরুল আমিন, বেলাল হোসেন, দিলদার হোসেনসহ আরও অনেকের বিরুদ্ধে। রাজউকেও কয়েক ডজন অভিযোগ দেয়া হয়।

গ্রাহকরা বলছেন, পরিচয় গোপন রেখে প্রতারণার নতুন কৌশল হিসেবেই তারা গোল্ড স্যান্ডস গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করে। গত কয়েকটি আবাসন মেলায় অংশ নেয়ার পরই মূলত তাদের নতুন পরিচয়ের বিষয়টি প্রকাশ পায়। রাজধানীর কয়েকটি থানায় গ্রীন ডেল্টা ও গোল্ড স্যান্ডস‍‍`র মালিক-কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে।

এআরএস

Link copied!