Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

টার্গেট নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতির পদ!

দেবুর জনপ্রিয়তা লাগাম টানতে অপরাজনীতিতে মত্ত

মামুনুর রশিদ, চট্টগ্রাম ব্যুরো

মামুনুর রশিদ, চট্টগ্রাম ব্যুরো

সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২২, ০৫:৪২ পিএম


দেবুর জনপ্রিয়তা লাগাম টানতে অপরাজনীতিতে মত্ত

স্বচ্ছ রাজনীতি মানবিকতা নেই কোথায় চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি দেবাশীষ নাথ দেবুর। ২১টি বছর একজন দেবাশীষ নাথ দেবু সৃষ্টি না হওয়ায় নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ কমিটি দিতে পারে নাই কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ। এমনটি মন্তব্য নগর থেকে কেন্দ্রের সিনিয়র নেতাদের। ছাত্র রাজনীতি থেকে নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি পর্যন্ত কখনো কোনো প্রকার অভিযোগের লেশমাত্র নেই দেবুর।

চট্টগ্রাম নগরীতে যে কজন জনপ্রিয় মানবিক ও কর্মীবান্ধব নেতা রয়েছে তাদের মধ্যে শীর্ষ অবস্থানে দেবু। করোনার সময় নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে রাতদিন মানবিক কাজ করে সবার নজর কেড়েছিলেন তিনি। অসহায় মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়াসহ যখন শ্বাসকষ্ট জনিত রোগীকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন হাসপাতাল তখন অক্সিজেন নিয়ে নগরের এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে ছুটে গিয়েছিলেন তিনি। সকল প্রকার চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতকরন থেকে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সকল প্রকার প্রচারণা মাক্স ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেছিলেন।

দেবুর পথ চলা রাজনীতি মানবিকতার মধ্যেই সীমাবদ্ধ না। তার উদ্যম ও সততার জন্য  চট্টগ্রাম মহানগর হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক, পাঁচলাইশ থানা পূজা  উদযাপন পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা, চট্টগ্রাম মহানগর  পূজা  উদযাপন পরিষদের কার্যকরী সদস্য ও গোলপাহাড় কালী মন্দির পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতিসহ একাধিক ধর্মীয় ও সামাজিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন তিনি।

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নিতাই প্রসাদ ঘোষ বলেন, দেবাশীষ নাথ দেবু একমাত্র স্বচ্ছ নেতা নগরে।  এতসব গুরুত্বপূর্ণ পদবীধারী নেতা চলাফেরা করেন সাধারণ যাত্রীবাহী যানবাহনে। একটি মোটরসাইকেল পর্যন্ত নেই দেবুর। মানুষের কল্যাণে কাজ করা তার নেশা।

তার এতসব জনপ্রিয়তা ও হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালার মত কর্মীবাহিনীর দেখে নিজ শিবিরে কতিপয় অপরাজনীতিতে মেতে উঠেছেন। টার্গেট করেছেন স্বয়ং স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতির পদকে।

মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রচার সম্পাদক মোসাদ্দেক নূর চৌধুরী তপু বলেন, আজ দেবাশীষ নাথ দেবু না হলে আমাদের কমিটি কখন হতো তা বলার অপেক্ষা রাখে না। উনার রাজনৈতিক ক্যারিয়াররের মধ্যে খুঁজে কোন অভিযোগ বের করতে পারবেন না।

একই কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: সাইফুদ্দিন বলেন, সভাপতির মত সহজ সরল সাদামাটা মানুষ নেই বল্লে চলে। পাঁচলাইশ থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রুবেল শীল বলেন, সমাজ নগর ও দেশকে সাজাতে দেবাশীষ নাথ দেবুর কোন বিকল্প নেই। তাঁর  প্রত্যেকটি চিন্তাভাবনা সুন্দর সৃষ্টিশীল।

গোলপাহাড় কালি মন্দিরের সাধারণ সম্পাদক কাজল দেব বলেন, দেবাশীষ নাথ দেবুর উদাহরণ দেবু। এই পর্যন্ত তাঁর সুনাম ছাড়া অন্য কিছু যেমন শুনি নাই তেমনি নেতিবাচক কিছু দেখি নাই। মানুষকে কিভাবে সম্মান করতে হয় ভালবাসতে হয় এবং ছোটদের স্নেহ করতে হয় শুধু তাঁর মধ্যে এইসব দেখছি।

নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট তসলিম উদ্দিন বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের মত সংগঠনের চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি হওয়া চারটি খানি কথা না। অনেক চড়াই-উতরাই সভাপতি হতে হয়েছে। কেন্দ্র চুলচেরা বিশ্লেষণ করেই সভাপতি করেছে। আমি সভাপতির সাথে ২০-২২ বছর রাজনীতি করছি। কখনো কোনো প্রকার নেতিবাচক কিছু দেখি নাই। নিজদের মধ্যে ওৎ পেতে থাকা একটি কুচক্রী মহল দেবুর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু তারা কখনো সফল হবে না।

অপর সহ-সভাপতি আজাদ খান অভি বলেন, রাজনীতির জন্য আইডল হচ্ছে দেবাশীষ নাথ দেবু। যার মধ্যে নেই বিন্দু পরিমান অহংকার গৌরব। তিনি সকল নেতাকর্মীদের প্রাণভোমরা।

সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন ফরহাদ বলেন, অত্যন্ত সাংগঠনিক এবং নেতৃত্বের সকল গুণাবলি  তাঁর মধ্যে রয়েছে বলে কেন্দ্র তাকে সভাপতি করেছে।

সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ খান বলেন, সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে নেতাকর্মীদের মন জয় করেছেন সভাপতি দেবু। কিভাবে মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়াতে হয় তা উনার কাছ থেকে শিখতে হবে। আজ অন্যান্য সংগঠনের চেয়ে আমাদের স্বেচ্ছাসেবক লীগ অনেক গুণ এগিয়ে তার সিংহভাগ অবদান সভাপতি দেবুর। আমি গোলপাহাড় এলাকার ছেলে। উনি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হয়ে একটি চাকরি করে সাধারণ জীবনযাপন করেন । যে অভিযোগের তীর তাঁর দিকে নিক্ষেপ করা হচ্ছে এর কোন সত্যতা বা ভিত্তি নেই। অপর সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ আচার্য্য বলেন,আমাদের সভাপতি দেবাশীষ নাথ দেবুর জনপ্রিয়তা সততা সাহসিকতা ও সাংগঠনিক দক্ষতা দেখে যাদের ঈর্ষান্বিত হচ্ছে তারা মূলত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করেনা। নিজেদের আখের গোছা গোছানো ছাড়া সংগঠনের গতিশীলতা বৃদ্ধির জন্য কোন কাজ করে না। যারা ভাল কাজ করে, তাদের কিভাবে টেনে নামাবে সেই চিন্তাই থাকেন। চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান আজিজ বলেন ছাত্ররাজনীতে থেকে শুরু করে কোথাও আমাদের সভাপতির সুনামের সহীত অর্জন ছাড়া কোন অভিযোগ নেই। চট্টল নগর পিতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর আওয়ামী রাজনীতির দুঃসময়ের স্বেচ্ছাসেবক লীগের হাল ধরেছেন। কোন ভিত্তি ছাড়া একটি ভুলবোঝাবুঝির বিষয়কে কেন্দ্র করে যে সম্মানহানি করছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

অপরাজনীতিতে মেতে উঠা কতিপয় একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে দেবাশীষ নাথ দেবুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাচ্ছে। যে বিষয়কে  সামনে নিয়ে আসছে তার কোন কিছুর সাথে সম্পৃক্ত নেই দেবু। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের অভিযোগকারী একটি মাধ্যমে জানিয়েছেন, একটি ভুলের জন্য দেবুকে নিয়ে  অদৃশ্য শক্তি ষড়যন্ত্র করছে। এতে আমার (অভিযোগের বাদি) সম্পৃক্ততা নেই। আমি নিজে লজ্জিত।

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি দেবাশীষ নাথ দেবু বলেন, যে বা যারা তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে তারা মূলত দল ভাঙ্গনের জন্য এইসব কাজ করছে। দল ও দলের বাইরে যে কোন মানুষ ৯৯ শতাংশ তাঁর পক্ষে ছাড়া বিন্দু পরিমান নেতিবাচক মন্তব্য করবেনা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে লালন করে প্রধামন্ত্রীর রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছি সেই রাজনীতির শুরু থেকে। আজকে আমার বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ভিত্তিহীন ও কাল্পনিক। এই অভিযোগের অভিযোগকারি ও আমার মধ্যে খুব স্বাভাবিকভাবে সমাধান হয়েছে। শুধু মাত্র একটি ভুলবোঝাবুঝি। আমার কেন্দ্রীয় কমিটি আমার উপর আস্থা ও বিশ্বাস রেখে সভাপতির যে দায়িত্ব দিয়েছে তা সঠিকভাবে পালনে আমার সততা ন্যায়পরায়ণতা ও মানবিকতার ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। পাশাপাশি ষড়যন্ত্রকারীদের দাঁত ভাঙ্গা জবাব দেওয়ার হুশিয়ারি তিনি।

Link copied!