Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর ছবি না থাকায় অনুষ্ঠান বর্জন করলেন এমপি

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি

সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২, ০৮:৪৫ পিএম


ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর ছবি না থাকায় অনুষ্ঠান বর্জন করলেন এমপি

বিদায় অনুষ্ঠানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি না থাকায় অনুষ্ঠান বর্জন করেছে নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক মো. আব্দুল কুদ্দুস। অনুষ্ঠান বর্জনের পর কলেজে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ছাত্রলীগ। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় ঘটনাটি ঘটেছে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা পৌর সদরে অবস্থিত বিলচলন শহীদ সামসুজ্জোহা সরকারি কলেজে।

বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখাযায়, বিদায় অনুষ্ঠান উপলক্ষে আয়োজিত অতিথি মঞ্চ ও সামিয়ানা অপসারণ করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের বিক্ষুব্ধ ভাবে কলেজ ত্যাগ করতে দেখাযায়। অপরদিকে কলেজ ছাত্রলীগ, পৌর ছাত্রলীগ ও উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ কার্যক্রম শেষ করে অবস্থান নেয় কলেজের মাঠে।

জানাযায়, বিলচলন শহীদ সামসুজ্জোহা সরকারি কলেজের এইচএসসি ২০২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের আয়োজনে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলো। অনুষ্ঠানের ব্যানারে প্রধান অতিথি হিসাবে নাম ছিলো স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপির। বিশেষ অতিথি হিসাবে নাম ছিলো নাটোরের জেলা প্রশাসক মোঃ শামীম আহমেদ ও নাটোর জেলা পুলিশ সুপার মোঃ সাইফুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বের দায়িত্বে ছিলেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ ড.মোঃ একরামুল হক। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্থানীয় সংসদ সদস্য অনুষ্ঠানস্থলে এসে দেখেন বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি নেই। এরপরে তিনি অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করে চলে যান। পরে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করে।

বিলচলন শহীদ সামসুজ্জোহা সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সোহানুর রহমান সজিব ও সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের জানান, জামায়াত বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার জন্য কলেজে একদল শিক্ষক রয়েছে। তাদের প্রচারণায় আজকে বিদায় অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি নেই। এ কারণে আমাদের মাননীয় সংসদ সদস্য অনুষ্ঠান বর্জন করেছে এবং আমরা বিক্ষোভ করেছি।

অত্র কলেজের অধ্যক্ষ ড. মো. একরামুল হক জানান, অনুষ্ঠানে কিছু ত্রুটি বিচ্ছুটি ছিলো। এ কারণে আজকের মত অনুষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে। কিছু ভুল ছিলো ইতিমধ্যেই সেগুলো সংশোধন করা হয়েছে। আশা করছি দুই-এক দিনের মধ্যে পুনরায় দিন তারিখ ঠিক করে অনুষ্ঠান কার্যক্রম শুরু হবে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক মো. আব্দুল কুদ্দুস বলেন, বিলচলন শহীদ সামসুজ্জোহা সরকারী কলেজ সরকারি করণ করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই কলেজের সার্বিক উন্নয়ন করেছি বাংলাদেশ আ-লীগ সরকার। সেই কলেজের অনুষ্ঠানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি থাকবে না এটা হতে পারেনা।

এসএম

Link copied!