community-bank-bangladesh
Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪,

কালিহাতী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: চেয়ারম্যান হলেন এস এ এম সিদ্দিকী

সোহান আহমেদ, কালিহাতী (টাঙ্গাইল)

সোহান আহমেদ, কালিহাতী (টাঙ্গাইল)

মে ২২, ২০২৪, ১১:০৫ এএম


কালিহাতী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: চেয়ারম্যান হলেন এস এ এম সিদ্দিকী

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রথমবার নির্বাচন করেই চমক সৃষ্টি করেছেন টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসনের সংসদ সদস্য আবদুল লতিফ সিদ্দিকী ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তমের ছোট ভাই এস এ এম সিদ্দিকী।

কালিহাতী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মোল্লাকে ৭ হাজার ২২৫ ভোটে হারিয়ে এস এ এম সিদ্দিকী বিজয়ী হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে কালিহাতীর ইউএনও ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার শাহাদাত হুসাইন স্বাক্ষরিত ফলাফলে বেসরকারিভাবে এস এ এম সিদ্দিকীকে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচনে আনারস প্রতীক নিয়ে এস এ এম সিদ্দিকী ওরফে আজাদ সিদ্দিকী পেয়েছেন ৫২ হাজার ৯১০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মোল্লা মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৪৫ হাজার ৬৮৫ ভোট ও হাসমত আলী দোয়াত কলম প্রতীকে পেয়েছেন ৬ হাজার ৭৯৬ ভোট।

অপরদিকে, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে মাহমুদুল হাসান দীপুল তালা প্রতীকে ৩৮ হাজার ৭৫৭ ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবদুল্যাহ সরকার চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ২৯ হাজার ৪৪৫ ভোট, আখতারুজ্জামান টিউবওয়েল প্রতীকে পেয়েছেন ২৬ হাজার ৫৩৯ ভোট, আব্দুল বারেক উড়োজাহাজ প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৭৫৫ ভোট ও জমির উদ্দিন বই প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৭২০ ভোট।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ফাতেমা খাতুন ফুটবল প্রতীকে ৫৩ হাজার ৫১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি রিনা পারভীন প্রজাপতি প্রতীকে পেয়েছেন ৪৮ হাজার ৮৫৪ ভোট।

এদিকে সকাল ৮টা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত নির্বাচনে প্রশাসনের তৎপরতায় অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নির্বাচনের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা টাঙ্গাইলের সহকারী পুলিশ সুপার (মধুপুর সার্কেল) ফারহানা আফরোজ জেমি বলেন, সকাল ৮টা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা বা অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাইনি।

ফারহানা আফরোজ জেমি আরও বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কঠোর অবস্থানে ছিল। প্রতিটি কেন্দ্রই পর্যাপ্ত সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন ছিল।

এদিকে সকালের দিকে তিনি বেশ কয়েকটি ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন ও নিরাপত্তার সার্বিক বিষয় পর্যবেক্ষণ করেন।

নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ছিল ১১৫টি। ২টি পৌরসভা ও ১৩টি ইউনিয়নের এ উপজেলায় মোট ভোটার  ৩ লাখ ৫৮ হাজার ৭৯২ জন।

ইএইচ

Link copied!