Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪,

বেরোবিতে বেগম রোকেয়া দিবস পালিত

বেরোবি প্রতিনিধি

বেরোবি প্রতিনিধি

ডিসেম্বর ৯, ২০২৩, ০১:৪৫ পিএম


বেরোবিতে বেগম রোকেয়া দিবস পালিত

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে রোকেয়া দিবস-২০২৩ পালিত হয়েছে।

শনিবার (৯ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৯ টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে এবং মহিয়সী বেগম রোকেয়ার অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. হাসিবুর রশীদ, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা ও ট্রেজারার প্রফেসর ড. মজিব উদ্দিন আহমদ।

পরে পর্যায়ক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ, বিভাগ, দপ্তর ও আবাসিক হলগুলোর পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয় ।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলমগীর চৌধুরী, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মন্ডল আসাদ, ছাত্র-উপদেষ্টা সৈয়দ আনোয়ারুল আজিমসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, হল প্রভোস্ট, পরিচালকসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

শনিবার সকাল ১০টায় স্বাধীনতা স্মারক মাঠ থেকে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. হাসিবুর রশীদের নেতৃত্বে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে স্বাধীনতা স্মারক মাঠে এসে শেষ হয়।

উপ উপাচার্য প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনার সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

যেখানে প্রবন্ধ উপস্থাপক হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেন্ডার এন্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মীর তামান্না ছিদ্দিকা এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. হাসিবুর রশীদ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. হাসিবুর রশীদ এবং অন্যান্য আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ ‘রোকেয়া পাঠ’ প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, ২য় বারের মতো বেগম রোকেয়ার দর্শন নিয়ে প্রকাশিত স্মারক গ্রন্থটি ভবিষ্যতে জ্ঞান চর্চা ও গবেষণায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিবছর রোকেয়া দিবসে এ সংকলন অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি আরও  জানান, আগামীতে অর্থনৈতিক সংকটের উত্তরণ ঘটলে ক্যাম্পাসে বেগম রোকেয়া স্থায়ী ম্যুরাল স্থাপন করা হবে।

আলোচনা সভায় বক্তরা বলেন, মহীয়সী বেগম রোকেয়া শুধুমাত্র নারী সমাজ নয় বরং সমাজের সকল মানুষকে জাগ্রত করে আলোর পথে নিয়ে এসেছিলেন।

উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় ট্রেজারার প্রফেসর ড. মজিব উদ্দিন আহমদ, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মন্ডল আসাদ, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, বেরোবি ছাত্রলীগের সভাপতি পোমেল বড়ুয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এআরএস

Link copied!